ঢাকা   ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  সুনামগঞ্জে শিশু তুহিন হত্যা: বাবার পক্ষে লড়বেন না কোনো আইনজীবী (আইন ও বিচার)        যেখানে দুর্নীতি-টেন্ডারবাজি, সেখানেই অভিযান: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        সড়কে দুর্ঘটনা এাড়তে সবাইকে সচেতন হবার আহবান প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)        বাংলাদেশের কৃষি এখন বিশ্বের অন্যতম রোল মডেলু: খাদ্যমন্ত্রী (জাতীয়)        প্রচুর অন্যায় এদেশে গেড়ে বসে আছে: পরিকল্পনামন্ত্রী (জাতীয়)        জামালপুরে ঘুষের টাকাসহ হাসপাতাল কর্মচারী আটক (জেলার খবর)        আজারবাইজানের ন্যাম সম্মেলনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)        সংবাদকর্মীদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস তথ্য প্রতিমন্ত্রীর (জাতীয়)        আবরার হত্যা নিয়ে বিএনপির নোংরা রাজনীতি পরিহার করা উচিত: হানিফ (রাজনীতি)        জামালপুরে শিশু নির্যাতন সম্পর্কে স্বভাব নেতাদের সাথে কর্মশালা (জামালপুরের খবর)      

ট্রাম্পের আয়কর বিবরণী দেখতে চায় ইউএস হাউস কমিটি

Logo Missing
প্রকাশিত: 08:09:29 pm, 2019-04-04 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আজ ডেক্সঃ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গত ছয় বছরের আয়কর বিবরণী দেখতে চায় ইউএস হাউস কমিটি। গত বুধবার একটি হাউস কমিটির ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রধান ট্রাম্পের গত ছয় বছরের ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক আয়কর বিবরণী দেখাতে অভ্যন্তরীণ রাজস্ব বিভাগের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স। ইতোমধ্যেই এ ব্যাপারে অভ্যন্তরীণ রাজস্ব বিভাগের কমিশনার চার্লস রেটিগের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের ওয়েজ অ্যান্ড মিনস কমিটির চেয়ারম্যান রিচার্ড নীল। তবে রাজস্ব বিভাগের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এক বিবৃতিতে রিচার্ড নীল বলেন, আমাদের সরকার এবং নির্বাচিত কর্মকর্তাদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের গণতন্ত্রের উপর আস্থা বজায় রাখতে আমেরিকান জনগণকে এ বিষয়টি আশ্বস্ত করা উচিত যে, তাদের সরকার সঠিকভাবে কাজ করছে। দুনিয়ার সব সব দেশেই যার আয় বেশি তাকে আয়কর দিতে হয় বেশি। তবে আয়করের বিস্তারিত বিবরণী গোপন রাখতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন অনেকে। ট্রাম্পও সে কাজটিই করেছেন। কিন্তু ২০১৭ সালে আমেরিকান একটি টেলিভিশন নেটওয়ার্ক তার পুরনো একটি আয়কর নথি ফাঁস করে দিয়ে হৈ চৈ ফেলে দেয়। এতে বলা হয়, ২০০৫ সালে ৩৮ মিলিয়ন ডলার আয়কর দিয়েছেন ট্রাম্প। সে বছর তিনি তার আয়কর বিবরণীতে আয়ের পরিমাণ দেখিয়েছেন ১৫০ মিলিয়ন ডলারের বেশি। নথিতে দেখা যায়, ওই বছর ট্রাম্প যে পরিমাণ আয়কর দিয়েছেন সেটি তার মোট উপার্জনের ২৪ শতাংশ। সাধারণত আমেরিকানরা গড়ে যে পরিমাণ আয়কর দেন এটি তার চেয়ে বেশি। তবে আমেরিকার উচ্চ আয়ের লোকজন গড়ে ২৭ দশমিক ৪ শতাংশ আয়কর দেন। কিন্তু ট্রাম্পের আয়কর তার তুলনায় কম। মার্কিন টিভি নেটওয়ার্ক এমএসএনবিসি ট্রাম্পের ওই আয়কর বিবরণী প্রকাশের ঘটনায় তখন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে হোয়াইট হাউস। কারণ নির্বাচনি প্রচারণার সময় ট্রাম্প তার আয়কর বিবরণী প্রকাশে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন। রেওয়াজ অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে যারা প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হন, তারা সবসময় নিজেদের আয়কর বিবরণী প্রকাশ করে থাকেন। ১৯৭৬ সাল থেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থীরা এ রীতি পালন করছেন। যদিও আইন অনুযায়ী এর কোনও বাধ্যবাধকতা নেই, তবে ট্রাম্প প্রচলিত রেওয়াজ ভেঙেছেন। তবে এবার একদম চিঠি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেই ট্রাম্পের গত ছয় বছরের আয়কর বিবরণী দেখতে চেয়েছে ইউএস হাউস কমিটি।