ঢাকা   মঙ্গলবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  মেসি ষষ্ঠবারের মতো ফিফার বর্ষসেরা (ফুটবল)        জামালপুরে র‌্যাবের অভিযানে এক ভুয়া চিকিৎসক গ্রেফতার (জামালপুরের খবর)        মেলান্দহ উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে শিশু নির্যাতন কারী উজ্জলের শাস্তির দাবীতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ (জামালপুরের খবর)        রাজিবপুরে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ এর উপর আলোচনা সভা (জেলার খবর)        মেলান্দহে ভাতার বই বিতরণ অনুষ্ঠান (জামালপুরের খবর)        সরিষাবাড়ি যুব উন্নয়ন অফিসের উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপি যুব প্রশিক্ষণ শুরু (জামালপুরের খবর)        রৌমারীতে নৌকাবাইচ খেলা অনুষ্ঠিত (জেলার খবর)        ঠাকুরগাঁওয়ে স্বামীকে হত্যার পর থানায় ফোন করে স্ত্রীর আত্মসমর্পণ (জেলার খবর)        সরকারি বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে হাজার হাজার কোটি টাকার অনিয়ম (জাতীয়)      

সব বিভাগীয় শহরে বিটিভির কেন্দ্র স্থাপন করার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:58:36 pm, 2019-04-13 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

আজ ডেক্সঃ ঢাকা ও চট্টগ্রামের পাশাপাশি দেশের বাকি ৬টি বিভাগীয় শহরে বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) কেন্দ্র স্থাপন করার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, একনেক ইতোমধ্যে এ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে। সব মিলিয়ে বিটিভির নেটওয়ার্ককে আমরা এমন জায়গায় উন্নীত করতে চাই- বিটিভিকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে চাই- আগে যেভাবে মানুষ ঘরে ঘরে বিটিভি দেখতো, আবার যেনো সেভাবে দেখে। গতকাল শনিবার বিটিভির চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ৯ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, বিটিভির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট যারা আছেন- তাদের অনুরোধ জানাবো প্রতিটি অনুষ্ঠানের মান রক্ষা করার জন্য। আর যারা শিল্পী, কলাকুশলী আছেন- তাদের অনুরোধ জানাবো প্লিজ, মান সম্মত নয় এমন অনুষ্ঠান সম্প্রচারের জন্য পীড়াপীড়ি করবেন না। এরকম হলে সম্প্রচারের সময় বাড়িয়েও কোনো লাভ হবে না। এসময় বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠানের মান বাড়ানোর তাগিদ দেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান ৬ ঘণ্টার সম্প্রচার থেকে ৯ ঘণ্টার সম্প্রচারে উন্নীত করেছে সরকার। আগামি ডিসেম্বরের মধ্যে আরও ৩ ঘণ্টা বাড়িয়ে ১২ ঘণ্টার সম্প্রচারে উন্নীত করা হবে। তবে শুধু সম্প্রচার সময় বাড়ালে হবে না, অনুষ্ঠানের মানও বাড়াতে হবে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়ার পর ১৯৯৬ সালের ১৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এখন সারাদেশে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান দেখা যায়। আমি নিজেও ঢাকায় বসে এই কেন্দ্রের অনুষ্ঠান দেখি। তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রথমে শুধু ১ ঘন্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার হতো। এরপর সেটি দেড় ঘন্টায় উন্নীত করা হয়। সেসময় চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে সম্প্রচার করা অনুষ্ঠান ঢাকা কেন্দ্রে দেখা বা শোনা যেতো না। এরপর এ কেন্দ্রের অনুষ্ঠান ৩ ঘন্টায় উন্নীত করা হয়। চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রে রূপান্তর করার জন্য প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিটিভির ডিজিসহ যারা এ মাধ্যমটির সঙ্গে যুক্ত, তারা জানেন- প্রকল্প গ্রহণ করার জন্য আমি কতটুকু দৌড়ঝাঁপ করেছি। সর্বশেষে ৪৪ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালে সম্প্রচার ৬ ঘন্টায় উন্নীত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে ক্যাবল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ক্যাবল টেলিভিশন চ্যানেল হিসেবেও বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র আত্মপ্রকাশ করে। তবে এখানেই আমরা শেষ করতে চাই না। বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে একটি পূর্ণাঙ্গ চ্যানেলে পরিণত করতে চাই। শুধু ক্যাবল লাইনের মাধ্যমে সম্প্রচার নয়, টেরিস্টরিয়াল সম্প্রচারও আমরা শুরু করতে চাই। যোগ করেন তথ্যমন্ত্রী। তথ্যমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (এফডিসি) একটি আউটলেট নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। এজন্য এখানে কিছু জায়গাও আমরা রেখেছি। যাতে চট্টগ্রাম থেকেও চলচ্চিত্র, শর্ট ফিল্ম, নাটক তৈরি করা যায়। ঢাকায় চলচ্চিত্র, শর্ট ফিল্প, নাটক তৈরি করার সময় প্রয়োজন হলে চট্টগ্রামের আউটলেটও যাতে ব্যবহার করা যায়। তিনি বলেন, যেহেতু একই মন্ত্রণালয়ের। তাই এফডিসির আউটলেট স্থাপনের জন্য আমরা চিন্তা ভাবনা করছি। প্রাথমিক পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। দ্রুত এটি বাস্তবায়ন করা হবে। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ। বক্তৃতায় সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বন্দরনগরী চট্টগ্রামের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি অনেক বেশি সমৃদ্ধ উল্লেখ করে তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে বিটিভি কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানান আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রামের সংস্কৃতি দেশের অন্য যে কোনো এলাকার চেয়ে অনেক বেশি সমৃদ্ধ। দল-মত নির্বিশেষে, সকল সংকীর্ণতার ঊর্ধ্বে উঠে এ সংস্কৃতিকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে হবে। তিনি বলেন, বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সম্প্রচারের সময় ৬ ঘণ্টা থেকে বাড়িয়ে ৯ ঘণ্টা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে চট্টগ্রামের শিল্পী, কলাকুশলীদের মেধা বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তাই আজ চট্টগ্রামবাসীর জন্য এক ঐতিহাসিক দিন। তবে শুধু অনুষ্ঠানের সময় বাড়ালে হবে না। সময় বাড়ানোর সঙ্গে অনুষ্ঠানের মানও বাড়াতে হবে। যোগ করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ১৯৯৬ সালের ১৯ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১ ঘণ্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। পরে ১ ঘণ্টা থেকে বাড়িয়ে অনুষ্ঠান সম্প্রচার দেড় ঘণ্টায় উন্নীত করা হয়। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে আধুনিকায়নের মাধ্যমে ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচারের ঘোষণা দেন। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর স্যাটেলাইটে পরীক্ষামূলকভাবে ৪ ঘণ্টা এবং একই বছরের ৩১ ডিসেম্বর ৬ ঘণ্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ৬ ঘণ্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার আলোকে এবার বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র ৯ ঘণ্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার করতে যাচ্ছে। যা পরবর্তীতে ১২ ঘণ্টায় উন্নীত হবে।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!