ঢাকা   ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  সরিষাবাড়ীতে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত (জামালপুরের খবর)        বকশিগঞ্জ শিক্ষার্থীবিহীন দুস্থ্য প্রতিবন্ধী কারিগরি শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র : ৯ প্রতিবন্ধীর শিক্ষাবৃত্তি (জামালপুরের খবর)        শেরপুরে আখেরী মুনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বিশ্ব জাকের মঞ্জিলের উরশ (জেলার খবর)        শ্রীবরদীতে বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচেতনতা শীর্ষক প্রচার, প্রেস ব্রিফিং ও সেমিনার অনুষ্ঠিত (জেলার খবর)        একনেকে ১৩ হাজার ৬৩৯ কোটি ব্যয়ে ৯ প্রকল্প অনুমোদন (জাতীয়)        পানির দাম ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব অযৌক্তিক: টিআইবি (জাতীয়)        চীনকে মাস্ক-গ্লাভসসহ চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ (জাতীয়)        কচুরিপানা খেতে বলিনি, গবেষণা করতে বলেছি: পরিকল্পনামন্ত্রী (জাতীয়)        দেশে করোনা ভাইরাসের রোগী মেলেনি, আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ (জাতীয়)        শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ দ্বিতীয়: সেনাপ্রধান (জাতীয়)      

নোয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:53:26 pm, 2019-09-02 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আজ ডেক্সঃ নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে দুই শিক্ষকসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। গত রোববার রাত ৮টা থেকে দুই ঘণ্টা ধরে চলা এ সংঘর্ষের সময় ক্যাম্পাসে ভাঙচুর এবং হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয় বলে শিক্ষকরা জানিয়েছেন। আহতদের মধ্যে আবদুল মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট ফিরোজ আহমদ, বঙ্গবন্ধু মুজিব হলের সহকারী প্রভোস্ট ইকবাল হোসেন এবং দুই শিক্ষার্থীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সহকারী প্রভোস্ট ইকবাল হোসেন জানান, সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে গত শনিবার রাতে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রবিন ও সাধারণ সম্পাদক ধ্রুবর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এরপর গত রোববার সন্ধ্যায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বৈঠক চলাকালে রাত ৮টার দিকে দুই পক্ষের সমর্থকরা আবারও সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় ক্যাম্পাসে হাতবোমা ফাটানো হয়, ভবনের কাচ ভাঙচুর করা হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ছাত্র হল বন্ধ ঘোষণা, তদন্তে কমিটি: ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনার জেরে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র হল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি সংঘর্ষের ঘটনায় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, সংঘর্ষের পর ছাত্রদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র ছাত্রাবাস ভাষা শহীদ আবদুস সালাম হল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এই পরিস্থিতিতে গতকাল সোমবার ডিপার্টমেন্ট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের পরীক্ষা স্থগিত করা হয় বলে তিনি জানান। ওই হলের প্রভোস্ট কাওসার হোসেন বলেন, শনি ও গত রোববার ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় হলটিতে ব্যাপক ভাংচুর চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় আমাকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি এবং কৃষি বিভাগের চেয়ারম্যান গাজী মো. মহসিনকে প্রধান করে সাত সদস্যে আরও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। উভয় কমিটিকে আগামি পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।