ঢাকা   শুক্রবার ২২ নভেম্বর ২০১৯ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  আফগানদের উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ (খেলাধুলা)        আচমকাই দিন-রাতের টেস্ট খেলতে প্রস্তাব দেয় ভারত (খেলাধুলা)        মুমিনুলের আক্ষেপ সাইফের জন্য (খেলাধুলা)        এসএ গেমসের মেয়েদের দল রুমানাকে ছাড়াই (খেলাধুলা)        ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান (খেলাধুলা)        রোহিঙ্গা নির্যাতন : আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের মুখোমুখি সু চি (আন্তর্জাতিক)        ভারতের সঙ্গে অত্যাধুনিক নৌ-অস্ত্র চুক্তি অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের (আন্তর্জাতিক)        আমদানি করা নেতার কথায় বিশ্বাস করবেন না: মমতা (আন্তর্জাতিক)        যৌন কেলেঙ্কারি: দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন প্রিন্স অ্যান্ড্রু (আন্তর্জাতিক)        কলকাতায় রুনা লায়লা (বিনোদন)      

শাহজালালে ২২৪৬টি স্মার্টফোনসহ আটক ৩

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:45:45 pm, 2019-09-07 |  দেখা হয়েছে: 5 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই হাজার ২৪৬ পিস মোবাইলসহ তিন চোরাকারবারিকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। গতকাল শনিবার সকাল ৮টার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের দুই নম্বর ক্যানোপি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ জানায়, সকাল ৭টার দিকে চীনের গুয়াংজু থেকে ইউএস বাংলার ফ্লাইট বিএস ৩২৬ যোগে ঢাকায় আসেন মো. সুজন (৪৯), শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স (৩৩) ও মো. রফিকুল ইসলাম (২৭)। সকাল ৮টার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের দুই নম্বর ক্যানোপি এলাকায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রথমে তারা বিভ্রান্তিকর তথ্য দেন ও শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার কথা স্বীকার করেন। পরে তাদের ব্যাগেজ তল্লাশি করে আইফোন, স্যামসাং, ওয়ান প্লাস, টান্সেন্ট গেম, শাওমি ও নোকিয়া ব্র্যান্ডের দুই হাজার ২৪৬ পিস মোবাইল পাওয়া যায়। জব্দ করা মোবাইলের আনুমানিক মূল্য সাড়ে তিন কোটি টাকা বলে জানা গেছে। আটক সুজন ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা থানার টগরবন্ড গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে। শাহরিয়ার ঢাকার ডেমরা থানার পাড়াদুগাইর (আমিনবাগ) হাসেরপুল এলাকার মো. দুলাল হোসেনের ছেলে। এ ছাড়া রফিকুল ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া থানার নওগাঁ (জয়তগঞ্জ) গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে, এ মোবাইল বাংলাদেশ ও ভারতে বিক্রির উদ্দেশে আনা হয়। ভারতীয় নাগরিক রাজেশের মাধ্যমে একটি অংশ ভারতে পাচার করা হত। আটক সুজন দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে এ ধরনের চোরাকারবারির সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে। বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন্স অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন বলেন, তাদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।