ঢাকা   ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  পানির দাম ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব অযৌক্তিক: টিআইবি (জাতীয়)        চীনকে মাস্ক-গ্লাভসসহ চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ (জাতীয়)        কচুরিপানা খেতে বলিনি, গবেষণা করতে বলেছি: পরিকল্পনামন্ত্রী (জাতীয়)        দেশে করোনা ভাইরাসের রোগী মেলেনি, আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ (জাতীয়)        শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ দ্বিতীয়: সেনাপ্রধান (জাতীয়)        ফখরুলের সঙ্গে কথোপকথনের রেকর্ড আছে: কাদের (রাজনীতি)        দক্ষিণ এশিয়ায় বসবাসের জন্য সবচেয়ে ব্যয়বহুল বাংলাদেশ (জাতীয়)        খালেদার প্যারোল নিয়ে কাদেরের সঙ্গে কথা হয়নি: ফখরুল (রাজনীতি)        দেশে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষ্যে বিতরণ কোম্পানিগুলোর ভূগর্ভস্থ লাইন নির্মাণের উদ্যোগ (জাতীয়)        বকশিগঞ্জ উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত (জামালপুরের খবর)      

জামালপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পার্শ্বে অবৈধ দোকানপাট চরম ঝুঁকিতে চলাচল করছে যানবাহন ও পথচারীরা

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:21:32 am, 2019-09-09 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

নিজস্ব সংবাদদাতা: শহরের বিসিক শিল্প নগরীর সামনে জামালপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পার্শ্বে যত্র তত্র গড়ে ওঠেছে অবৈধ দোকানপাট। এতে চরম ঝুঁকি ও ভোগান্তির মধ্যে চলাচল করতে হচ্ছে যানবাহন ও পথচারীদের। এ কারণে যে কোন সময় ঘটতে পারে মর্মান্তিক দূর্ঘটনা। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানায়, বিসিক শিল্প নগরী এলাকায় জামালপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়ক প্রশস্ত করনের জায়গা দখল করে কিছু সংখ্যক স্বার্থান্বেষী ব্যক্তি গড়ে তোলেছে চা, পান, সিগারেটের টং দোকান সহ বিভিন্ন খাবারের অবৈধ দোকানপাট। এ সকল দোকানিরা অবৈধ পানি, বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে প্রতিনিয়ত তাদের ব্যবসা সম্প্রসারিত করছে। ঝুঁকিপূর্ণ এই মহাসড়কের পার্শ্বে অবাধে বেআইনী দোকানপাট গড়ে ওঠায় বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে চরম বিঘ্ন সৃষ্টি ও প্রকট যানজট সহ পথচারীদের চলাচলে নানা দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কতিপয় ব্যক্তিবর্গ আরো জানায়, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মহাসড়কের পাশ থেকে অবৈধ দোকানগুলো সরিয়ে নেয়ার জন্য একাধিকবার নোটিশ প্রদান করলেও তারা কোন তোয়াক্কা করে নি। নোটিশ দেওয়ার পরেও সরে না যাওয়ায় কেন অবৈধ দোকানগুলো উচ্ছেদ করা হচ্ছে না এটি তাদের অজানা। জাবেদ ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার সানি বলেছেন, বিস্ফোরক আইনে পেট্রোল পাম্প এবং সিএনজি পাম্পের আশপাশে কয়েকশ গজের মধ্যে আগুন বা দাহ্য পর্দাথের ব্যবহার নিষিদ্ধ। কিন্তু এ আইন উপেক্ষা করে ফিলিং স্টেশনের সামনে ৫০/৬০ গজের মধ্যেই চা, বিড়ি, সিগারেটের দোকানে চব্বিশ ঘন্টায় আগুনের ব্যবহার হচ্ছে। ফিলিং স্টেশনে যে কোন সময় হঠাৎ অতিরিক্ত গ্যাস বের হয়ে অথবা চেকবাল্ব ছুটে গিয়ে পাশ্ববর্তী চা দোকানের আগুনের স্পর্শে ছড়িয়ে পড়তে পারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। তাই আমরাও সর্বদা আতঙ্ক ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ব্যাপারে বিসিক শিল্প নগরী ব্যবসায়িক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক খান মিলন বলেন, মহাসড়কের পাশ্বে এ সব অবৈধ দোকানপাটের কারণে আমাদের ব্যবসায়িক চরম ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। এগুলোকে অপসারনের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আমরা একাধিকবার লিখিতভাবে জানিয়েছি তবুও এদের উচ্ছেদকল্পে কোন কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। তাই নিরাপদে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচলের স্বার্থেই বিসিক এলাকার জামালপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পার্শ্বে টং দোকান সহ সকল অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ করার জন্য ব্যবসায়ী মহল দাবি জানিয়েছে।