ঢাকা   বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ (ক্রিকেট)        নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)        ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে মেগা প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে: সিঙ্গাপুর থেকে ফিরে মেয়র খোকন (জাতীয়)        স্কুলে স্যানিটারি ন্যাপকিন সরবরাহের চিন্তা: তথ্য প্রতিমন্ত্রী (জাতীয়)        দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে এনবিআর এর টাস্কফোর্স কমিটি গঠন (ব্যবসা-বাণিজ্য)        ঢাবিতে ছাত্রলীগের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের হাতাহাতি (অপরাধ)        রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট দেওয়ার সঙ্গে জড়িতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পক্ষে রয়েছে চীন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        নিউইয়র্ক সফরে দুটি সম্মাননা পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)        ময়মনসিংহে ছুরিকাঘাতে গৃহবধূ খুন, স্বামী আটক (ময়মনসিংহ)      

কুমিল্লায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:41:22 pm, 2019-09-09 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ কুমিল্লার বুড়িচংয়ে কথিত বন্দুকযুদ্ধে তিনজন নিহত হয়েছেন, যারা ‘ডাকাত দলের সদস্য’ বলে পুলিশের ভাষ্য। বুড়িচং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাফায়েত হোসেন বলছেন, গত রোববার রাত আড়াইটার দিকে পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের কোমাল্লা গ্রামে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- বুড়িচং উপজেলার জগতপুর এলাকার মৃত আবুল হাশেমের ছেলে অলি মিয়া (৪২), দেবিদ্বার উপজেলার চরবাকর এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে বাবুল মিয়া (৩৮) এবং ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার গোপালনগর এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে এরশাদ মিয়া (২৬)। তাদের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় ডাকাতির বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পরিদর্শক সাফায়েত বলেন, ‘ডাকাতরা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে’ খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল কোমাল্লা গ্রামে অভিযানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল গুলি ছোড়ে। পুলিশও তখন আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশের আরেকটি দল ঘটনাস্থলে যায়। গোলাগুলির মধ্যে তিন ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়। পরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি দেখে ‘ডাকাতদল’ পালিয়ে যায় বলে পরিদর্শক সাফায়েতের ভাষ্য। তিনি বলেন, গুলিবিদ্ধ তিনজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি, একটি পাইপগান, দুটি ছোরা, একটি ড্যাগার, সাতটি মুখোশ, দুটি টর্চ, তিনটি স্ক্রু ড্রাইভার, তিনটি মোবাইল ফোন উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। বুড়িচং থানার ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস, এসআই মো. মোয়াজ্জেম, এসআই পুষ্প বরণ চাকমা, এএসআই মহিউদ্দিন ও পুলিশ কনস্টেবল রফিক এ অভিযানে আহত হয়েছেন বলে জানান পরিদর্শক সাফায়েত।