ঢাকা   শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  সুনামগঞ্জে শিশু তুহিন হত্যা: বাবার পক্ষে লড়বেন না কোনো আইনজীবী (আইন ও বিচার)        যেখানে দুর্নীতি-টেন্ডারবাজি, সেখানেই অভিযান: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        সড়কে দুর্ঘটনা এাড়তে সবাইকে সচেতন হবার আহবান প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)        বাংলাদেশের কৃষি এখন বিশ্বের অন্যতম রোল মডেলু: খাদ্যমন্ত্রী (জাতীয়)        প্রচুর অন্যায় এদেশে গেড়ে বসে আছে: পরিকল্পনামন্ত্রী (জাতীয়)        জামালপুরে ঘুষের টাকাসহ হাসপাতাল কর্মচারী আটক (জেলার খবর)        আজারবাইজানের ন্যাম সম্মেলনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)        সংবাদকর্মীদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস তথ্য প্রতিমন্ত্রীর (জাতীয়)        আবরার হত্যা নিয়ে বিএনপির নোংরা রাজনীতি পরিহার করা উচিত: হানিফ (রাজনীতি)        জামালপুরে শিশু নির্যাতন সম্পর্কে স্বভাব নেতাদের সাথে কর্মশালা (জামালপুরের খবর)      

চিকিৎসার জন্য খালেদার বিদেশ যাওয়ার মতো অবস্থা হলে বিবেচনা: কাদের

Logo Missing
প্রকাশিত: 02:47:48 pm, 2019-10-05 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

ঢাকা ডেক্স:

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, খালেদা জিয়া যদি জামিন পান এবং চিকিৎসকদের পরামর্শে চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার মতো অবস্থা যদি থাকে এবং সেই পর্যায়ে যদি তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে, সেটা পরবর্তী সময়ে বিবেচনা করা হবে। তবে বিএনপি যে দাবি করছে, চিকিৎসকদের মতামতের সঙ্গে তার সংগতি নেই বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে বিএনপির সংসদ সদস্যরা আমাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। আমার মাধ্যমে তাঁরা সরকারের উচ্চ পর্যায়ে বিষয়টি বিবেচনার কথা বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তবে বিষয়টি নিয়ে সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে কোনো রেসপন্স আসেনি। গতকাল শুক্রাবর সকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈর এলাকার খাড়াজোড়ায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চার লেন প্রকল্পের উন্নয়নকাজ পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, খালেদা জিয়ার বয়স তো হয়েছে। এই বয়সে একেবারে সুস্থ-সবল তিনি থাকবেন, এমন কোনো কথা নেই। তাঁর জন্য চিকিৎসকদের একটি দল চিকিৎসার দায়িত্বে আছে। একটি চিকিৎসা বোর্ড আছে, তাঁরা মাঝেমধ্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখে। অসুস্থতার বিষয়টি, বিএনপি যা বলে, তার সঙ্গে চিকিৎসকদের যে রিপোর্ট তার মিল নেই। মানবিক বিষয়টা যেমন দেখতে হবে, সেখানে আইনগত একটা ব্যাপার আছে। আইনগত ব্যাপারটি সরকারের হাতে নয়।

মন্ত্রী আরো বলেন, চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযান কোনো ব্যক্তি, গোষ্ঠী বা দলের বিরুদ্ধে নয়। এটি অপরাধী ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে একটি অভিযান। দুর্বৃত্তায়নের একটি চক্র রয়েছে। এই চক্রটি ভেঙে দিতে হবে, এর জন্য প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যেটি শুরু করা হয়েছে ঘর থেকে। যারাই অপরাধী, সেটা ঢাকা হোক অথবা দেশের যেকোনো জায়গায় হোক, সারা দেশের যেকোনো অপকর্মকারী, যেখানে দুর্বৃত্তায়ন, চাঁদাবাজি, লুটপাট ও টেন্ডারবাজি সেখানেই এই অভিযান চলবে। এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও র‌্যাবকে পরিষ্কারভাবে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি দিল্লি যাওয়ার আগে বলে গিয়েছেন এই অভিযান শিথিল হবে না।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথের ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাইফুদ্দিন, গাজীপুর পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, কালিয়াকৈর থানার ওসি আলমগীর হোসেন মজুমদার, সালনা (কোনাবাড়ী) হাইওয়ে থানার ওসি মজিবুর রহমান এবং সড়ক ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!