ঢাকা   রবিবার ৩১ মে ২০২০ | ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

মোদির জন্য আসছে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী বিমান

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:48:41 am, 2019-10-07 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতোই নিরাপত্তা পেতে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কারণ আগামি বছরের মাঝামাঝিতেই বিশেষ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী দুটি বোয়িং ৭৭৭ বিমান ভারতে আসবে। প্রধানমন্ত্রী মোদির নিরাপত্তার জন্যই ওই বিমান দুটি আনা হচ্ছে। তবে ওই বিমানে মোদি ছাড়াও ভারতের রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতি চড়তে পারবেন। হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই বিমানের বিষয়ে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হচ্ছে। বিমান দুটি নাম হবে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। বিমান দুটিতে থাকবে বিশেষ কনফিগারেশন। অফিস স্পেশ ছাড়া মিটিং রুমও থাকবে সেখানে। থাকবে বিশেষ যোগাযোগ ব্যবস্থাও। মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেভাবে এয়ার ফোর্স ওয়ান ব্যবহার করেন ঠিক তেমনই এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমানে থাকবে সেল্ফ প্রোটেকশন সুইট (এসপিএস)। এই এসপিএস সুরক্ষা ব্যবস্থা অত্যন্ত উন্নত প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এতে সব ধরনের উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার থাকবে। এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমান শত্রুপক্ষের রাডার বিকল করে দিতে সক্ষম হবে। মিসাইলের গতিপথও বদল করে দেবে। বিমানের সতর্কতা এবং কাউন্টারমেজার সিস্টেমগুলোর জন্য পাইলটকে কোনো পদক্ষেপ নিতে হবে না। প্রয়োজন মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই সেটি কাজ করতে শুরু করবে। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারকারী বিমান প্রতিরক্ষা ভারতের হাতে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। এই বিমানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সম্ভাবনা আছে কিনা তা আগে থেকেই জানা যাবে। এ ধরনের বিমানের পেছনে খরচ হবে প্রায় ১৯ কোটি মার্কিন ডলার।