ঢাকা   ২৭ মে ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

মেলান্দহে ভূমির প্রকৃত মালিকের বিরুদ্ধে জবর দখলকারীর আদালতে মামলা

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:46:56 pm, 2019-10-10 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

স্টাফ রিপোর্টার:

উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের পুগলীপাড়া গ্রামের মৃত ফজল মোল্লার ছেলে এরশাদ মোল্লার পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত ভূমিতে প্রতিবেশী গ্রামের মৃত কিপু ফকিরের ছেলে আহাদ আলী সংগীয় লোকজন নিয়ে এরশাদ মোল্লার পৈত্রিক সম্পত্তিতে রাতের অন্ধকারে গাছ কেটে বসত ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংবাদে আলোচ্য বিষয়বস্তু হচ্ছে, ভূমি দস্যু আহাদ আলী গং- দখলকৃত ভূমি মেলান্দহ উপজেলার পুগলীপাড়া গ্রামে হলেও ভূমি মালিকের বিরুদ্ধে আদালতে দায়েরকৃত ০৭ ধারা মামলায় ভূমির অবস্থান ইসলামপুর উপজেলার পচাবহলা মৌজায় বি.আর.এস খতিয়ান নং- ২০, দাগ নং- ১১৪৮ এ ৯ শতাংশ ভূমি দেখিয়েছে। ভূমি দস্যু আহাদ আলীর জাতীয় পরিচয় পত্রে গ্রাম তেঘরিয়া, ডাকঘর- হরিপুর, উপজেলা মেলান্দহ থাকলেও মামলায় গ্রাম- পচাবহলা ফকিরপাড়া, ইসলামপুর উপজেলা ঠিকানা উল্লেখ করে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালত “খ” অঞ্চল জামালপুর, মামলা নম্বর- ৭২২/২০১৯ ইং দায়ের করেছে। ভূমির প্রকৃত মালিক এরশাদ আমাদের প্রতিবেদককে জানায়, উক্ত দস্যুকে তার ভূমিতে কয়েকটি গাছ কেটে ঘর নির্মাণের সহযোগিতা করেছে ভূমির নিকস্থ বসবাসকারী ১। ইলু ফকির, পিতা- মুজা ফকির, ২। মতিউর রহমান, পিতা- মৃত ময়দর ফকির, ৩। শফিকুল ইসলাম, পিতা- কুদ্দুস আলী, ৪। ভালু ফকির, পিতা- মৃত সুলতান ফকির, ৫। রাজা ফকির, পিতা- মৃত কোরবান ফকির, ৬। খোকা ফকির, পিতা- মৃত কোরবান ফকির ও সম ফকির, পিতা- মৃত মক্কু ফকির। উল্লেখ্য যে, এদের মধ্যে মতিউর রহমান কুলিয়া দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন। উল্লেখিত ভূমি দস্যুদের কুলিয়া ইউ.পি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম বিষয়টি সুরাহার জন্য আহবান করলেও তারা কোন সাড়া দেয়নি। এলাকাবাসী জানান, এমন ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা দ্রুত গ্রহণ না করলে যে কোন মুহুর্তে খুন খারাপির মত ঘটনা সৃষ্টি হতে পারে। ভূমি দস্যুদের হুমকিতে ভূমির প্রকৃত মালিক এরশাদসহ তার পরিবার নিরাপত্তা হীনতায় ভোগছে।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!