ঢাকা   সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  শেরপুরে সুলতানের দাম হাঁকানো হচ্ছে ১৫ লাখ টাকা (জেলার খবর)        গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইর্ষন্বীয় ভূমিকা রাখছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        ২০ বছরেও মেরামত হয়নি পৌর এলাকার সড়কটি (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে জেনারেল হাসপাতাল ঘুরে গেলেন সচিব মো: মাহাবুব হোসেন (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে এক গর্ভবতী নারী ও বিজিবি সদস্য সহ ১৭ জনের করোনা শনাক্ত, আক্রান্ত ৭০২ (জামালপুরের খবর)        মাদারগঞ্জে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ক মতবিনিময় সভা (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে বঙ্গবন্ধুর অন্যতম সহচর ছিলেন মতিয়র রহমান তালুকদার (জামালপুরের খবর)        সাইকেল কেনার টাকা প্রধানমন্ত্রীর করোনা তহবিলে দান (জামালপুরের খবর)        রৌমারীতে জিঞ্জিরাম নদী গর্ভে ঘরবাড়ী ভাঙন রোধে মানববন্ধন (জেলার খবর)        শ্রীবরদীর সাজাপ্রাপ্ত আসামী গাজীপুরে গ্রেফতার (জেলার খবর)      

বিতর্কিত রাম জন্মভ‚মি-বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনায় আবেদন

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:00:51 pm, 2019-12-02 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. আর্ন্তজাতিক:

অযোধ্যার বিতর্কিত রাম জন্মভ‚মি-বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনা করতে ভারতের সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছে প্রভাবশালী মুসলিম সংগঠন জমিয়ত উলেমা-ই-হিন্দ। সোমবার সর্বোচ্চ আদালতে তাদের আবেদনটি জমা পড়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। আবেদনে জমিয়তে উলেমার প্রধান আরশাদ মাদানি বলেছেন, ভারতের সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমান ভেঙে ফেলা বাবরি মসজিদের জমি রামমন্দির নির্মাণে দেয়ার রায়ে নাখোশ। আদালত আমাদের অধিকার দিয়েছে, আমরা অবশ্যই পুনর্বিবেচনার আবেদন করবো, পিটিআইকে কয়েকদিন আগে এমনটাই বলেছিলেন তিনি। জমিয়তে উলামা-ই-হিন্দের এ শীর্ষ নেতার মতে, অযোধ্যা মামলার প্রধান তর্কই ছিল মন্দির ভেঙ্গে মসজিদ নির্মাণ হয়েছিল কিনা- তা নিয়ে। আদালতই বলেছে, মন্দির ভেঙে মসজিদ হয়েছে এমন কোনো প্রমাণ মেলেনি। অর্থ্যাৎ মুসলিমদের দাবি সঠিক। কিন্তু চ‚ড়ান্ত রায় হয়েছে এর বিপরীতে। রায় বোধগম্য না হওয়ায় আমরা পুনর্বিবেচনার আবেদন করতে যাচ্ছি, বলেছিলেন তিনি। নভেম্বরের শুরুতে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রাম জন্মভ‚মি-বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে বিতর্কিত পৌনে তিন একরের জমিটিতে রামমন্দির নির্মাণ এবং অযোধ্যার অন্য কোথাও মসজিদ নির্মাণে মুসলমানদের ৫ একর জমি দেয়ার আদেশ দিয়েছিলেন। মামলার অন্যতম বিবাদি সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড ওই রায় মেনে নিয়ে রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করা হবে না বলে জানালেও জমিয়তে উলেমা-ই-হিন্দ এবং অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড সেই পথে না হাঁটার ঘোষণা দেয়।