ঢাকা   ২৯ জানুয়ারী ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে রক্তের বন্ধনের ৯ম প্রতিষ্ঠাবর্ষিকী উদযাপিত (জামালপুরের খবর)        পরীক্ষা কেন্দ্রে কোন ধরনের অনিয়ম সহ্য করা হবে না -জেলা প্রশাসক (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে স্যার ফজলে হাসান আবেদের স্মরণ সভা “ধন্যবাদ আবেদ ভাই” (জামালপুরের খবর)        যারা ইউটিউব চ্যানেল ও বিভিন্ন ধর্ম সভায় কৌশলে যুদ্ধাপরাধীদের কথা বলে তারা জামায়াতের প্রডাক্ট-ধর্মমন্ত্রী (জামালপুরের খবর)        মেলান্দহে জামিয়া হুসাইনিয়া আরাবিয়া’র ৬০বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ঐতিহাসিক ইসলামী মহা সম্মেলন (জামালপুরের খবর)        নির্ধারিত সময়ের ৬ মাস পরেও শেষ হয়নি কাজ (জামালপুরের খবর)        নানা অনিয়মের অভিযোগে ইসলামপুর বাইপাস সড়কের কাজ চলছে কচ্ছপ গতিতে, (জামালপুরের খবর)        দেওয়ানগঞ্জ ডাংধরায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় শোক র‌্যালি (জামালপুরের খবর)        খুপিবাড়ী এমএম উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল (জামালপুরের খবর)        শাহবাজপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দূর্নীতির বিস্তার নিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা (জামালপুরের খবর)      

জঙ্গিবাদ বিরোধী অলআউট প্রচেষ্টায় অনেকটাই সফল হয়েছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Logo Missing
প্রকাশিত: 02:26:44 am, 2019-12-11 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আ.জা. ডেক্স: সরকারের জঙ্গিবিরোধী অলআউট প্রচেষ্টার কারণে বর্তমানে দেশে জঙ্গিবাদ একটা পর্যায়ে নিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) আয়োজিত উগ্রবাদ বিরোধী জাতীয় সম্মেলনের সমাপনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ বিরোধী সরকারের অলআউট প্রচেষ্টায় আমরা অনেকটাই সফল হয়েছি। বর্তমানে বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ দমনে আমরা একটা পর্যায়ে চলে এসেছি। এ ভূখন্ডের হাজার বছরের ইতিহাসে জঙ্গিবাদ-উগ্রবাদ ছিল না মন্তব্য করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ শান্তিপ্রিয় দেশ। এ দেশে হঠাৎ করে কোথা থেকে যেন জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ শুরু হলো। হঠাৎ করে একের পর এক টার্গেট কিলিং শুরু হলো। সবগুলো ঘটনা পর্যালোচনা করে আমরা নিশ্চিত হয়েছি, এগুলো আমাদের দেশীয় সন্ত্রাসীদেরই কর্মকান্ড। তারা বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে এ ধরনের কর্মকান্ড চালিয়েছে। এর মধ্যেই ২০১৬ সালে হলি আর্টিজানে জঘন্যতম জঙ্গি হামলা চালিয়ে দেশি-বিদেশিসহ ২২ জন নাগরিককে হত্যা করা হয়। এর পরপরই একটি ওয়েবসাইট থেকে দাবি করা হলো, এটি অন্য একটি দেশের জঙ্গিদের কাজ। অথচ সে দেশের সঙ্গে আমাদের বর্ডারসহ কোন ধরনের সম্পর্ক নেই।

তিনি বলেন, এ ঘটনার পরপরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদ বিরোধী ডাক দিলেন। সে ডাকে সাড়া দিয়ে সর্বস্তরের মানুষ ঘুরে দাঁড়ালেন। এরপর এমন ঘটনাও ঘটেছে মা তার নিজের সন্তানকে ধরিয়ে দিয়েছেন। আমরা খুঁজে বের করতে চেষ্টা করলাম কেন এ সন্ত্রাস? বাংলাদেশ কখনোই জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় না। আমরা বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে বসে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধের আহবান জানালাম। তরুণদের প্রতি আহবান জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তরুণরা যারা ফেসবুকসহ অন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কিংবা ভার্চুয়াল জগতে সারাক্ষণ থাকেন, তারা কোনকিছু দেখলে বিশ্বাস করার আগে যেন বিষয়টি যাচাই করে নেন। তিনি বলেন, পরিবারকে সবচেয়ে বড় দায়িত্ব পালন করতে হবে, যেন সন্তানরা জঙ্গি মতবাদে উদ্বুদ্ধ হতে না পারে। এর বিরুদ্ধে সবাইকে কাজ করতে হবে। সবাই মিলে কাজ করলে জঙ্গিবাদকে অবশ্যই নির্মূল করা সম্ভব হবে।