ঢাকা   ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  ইয়েমেন যুদ্ধের মধ্যে ১৮০ কোটি ডলারের মার্কিন অস্ত্র কিনল আবু ধাবি (আন্তর্জাতিক)        নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিয়েবাড়িতে ট্রাক, নিহত ১৩ (আন্তর্জাতিক)        কাশ্মিরে অস্ত্র হাতে তুলে নিলেই গুলির নির্দেশ (আন্তর্জাতিক)        সৌদি যুবরাজের নির্দেশে মুক্ত হচ্ছেন ২১০০ পাকিস্তানি বন্দি (আন্তর্জাতিক)        আমাদের সকল প্রচেষ্টা ও প্রয়াস সার্থক হয়েছে: সিইসি (জাতীয়)        সততাই আমাদের সরকারের মূল চালিকাশক্তি: প্রযুক্তিমন্ত্রী (রাজনীতি)         শাজাহান খানের নেতৃত্বে সড়কে শৃঙ্খলার কমিটি হাস্যকর: রিজভী (রাজনীতি)        উপজেলা নির্বাচন জৌলুস হারাতে বসেছে: ইসি মাহবুব (জাতীয়)        সংবাদমাধ্যমের আরো দায়িত্বশীল হওয়া প্রয়োজন: তথ্যমন্ত্রী (জাতীয়)        শহীদ মিনারে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে: আছাদুজ্জামান (জাতীয়)      

১০ অক্টোবর গাজীপুরে রহমত আলী সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

Logo Missing
প্রকাশিত: 06:00:20 pm, 2018-10-04 |  দেখা হয়েছে: 4 বার।

আজ ডেক্স

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গাজীপুরের অ্যাডভোকেট রহমত আলী সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গাজীপুর জেলা প্রশাসক দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, আগামি ১০ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতুটি উদ্বোধন করবেন। শ্রীপুর উপজেরার বানার নদীর উপর ২৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত অ্যাডভোকেট রহমত আলী সেতুর দৈর্ঘ্য ৩১৫ মিটার। জেলা প্রশাসক বলেন, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু উদ্বোধনের বিষয়টি মৌখিকভাবে আমাদের জানানো হয়েছে। আমরা একটি পাবলিক সভার মাধ্যমে উদ্বোধন অনুষ্ঠানটি করতে চাই। যাতে প্রধানমন্ত্রীর কথা সর্বস্তরের মানুষ শুনতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পরই সেতুটি সর্বসাধারণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হবে বলে জানান তিনি। শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহেনা আকতার বলেন, আমরা সভার জন্য তিনটি স্থান নির্ধারণ করে প্রস্তাবনা পাঠিয়েছি। সেখান থেকে একটি নির্ধারণ করে দেওয়ার পরই বাকি কাজ শুরু হবে। শ্রীপুর উপজেলা প্রকৌশলী সুজায়েত হোসেন বলেন, উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্পে স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে জমি অধিগ্রহণ ও অ্যাপ্রোচসহ ২৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এজন্য ১ দশমিক ৫২ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়। ২০১১ সালের ১০ অক্টোবর সেতুটির কাজ শুরু হয়ে ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি শেষ হয় বলে জানান তিনি। ৩১৫ মিটার দীর্ঘ এই সেতুটি শ্রীপুর, কাপাসিয়া উপজেলা, ময়মনসিংহের গফরগাঁও ও কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করবে। পাশাপাশি শ্রীপুর উপজেলার চারটি ও কাপাসিয়া উপজেলায় চারটি ইউনিয়নের মানুষ এর সুবিধা পাবে।