ঢাকা   ২৯ জানুয়ারী ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে রক্তের বন্ধনের ৯ম প্রতিষ্ঠাবর্ষিকী উদযাপিত (জামালপুরের খবর)        পরীক্ষা কেন্দ্রে কোন ধরনের অনিয়ম সহ্য করা হবে না -জেলা প্রশাসক (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে স্যার ফজলে হাসান আবেদের স্মরণ সভা “ধন্যবাদ আবেদ ভাই” (জামালপুরের খবর)        যারা ইউটিউব চ্যানেল ও বিভিন্ন ধর্ম সভায় কৌশলে যুদ্ধাপরাধীদের কথা বলে তারা জামায়াতের প্রডাক্ট-ধর্মমন্ত্রী (জামালপুরের খবর)        মেলান্দহে জামিয়া হুসাইনিয়া আরাবিয়া’র ৬০বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ঐতিহাসিক ইসলামী মহা সম্মেলন (জামালপুরের খবর)        নির্ধারিত সময়ের ৬ মাস পরেও শেষ হয়নি কাজ (জামালপুরের খবর)        নানা অনিয়মের অভিযোগে ইসলামপুর বাইপাস সড়কের কাজ চলছে কচ্ছপ গতিতে, (জামালপুরের খবর)        দেওয়ানগঞ্জ ডাংধরায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় শোক র‌্যালি (জামালপুরের খবর)        খুপিবাড়ী এমএম উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল (জামালপুরের খবর)        শাহবাজপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দূর্নীতির বিস্তার নিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা (জামালপুরের খবর)      

বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থীকে ঐক্যফ্রন্টের সমর্থন

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:26:09 pm, 2020-01-08 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ

ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। জোটের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন জোটের পক্ষ থেকে বিএনপির মেয়র প্রার্থীদের হাত ধরে সমর্থন দেন। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর মতিঝিলে ড. কামালের চেম্বারে উত্তরের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণের মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন উপস্থিত হয়ে দোয়া চাইতে গেলে তাদেরকে সমর্থন দেওয়ার ঘোষণা দেয় ঐক্যফ্রন্ট।

এ সময় ড. কামাল বলেন, সিটি নির্বাচনে আমরা বিএনপির দুই প্রার্থীকে সমর্থন জানাচ্ছি। ড. কামাল আরও বলেন, একেকটা নির্বাচন প্রক্রিয়া কীভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে...। নির্বাচনের ঘোষণা পরে, একেকটা রায় হয়ে যায়। আমাদের আশঙ্কা এবারও তারা (ক্ষমতাসীনরা) একই ধরনের নাটক করার চেষ্টা করছে। বিএনপির মেয়র প্রার্থীদের জনগণের কাছে গিয়ে কথা বলার পরামর্শ দিয়ে ড. কামাল বলেন, দেশের মানুষের অধিকার রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশের মালিক তারা, তাদের এগিয়ে আসতে হবে। খুব জোরালোভাবে সামনে আসতে হবে। দেশের মালিককে তার ভূমিকা রাখতে হবে।

সরকার নির্বাচন প্রক্রিয়াকে নষ্ট করেছে দাবি করে ড. কামাল হোসেন বলেন, সরকার একদম নির্লজ্জভাবে সেটাকে ধ্বংস করেছে। এটা মানুষকে বোঝাতে হবে আমাদের। এ নিয়ে আমাদের আন্দোলন চলবে। জনগণ চাচ্ছে, নির্বাচন যাতে আমরা করতে পারি। সেজন্য আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে হবে। গণতন্ত্রকে পুরোপুরি বাস্তবে জাগানোর জন্য ঐক্যবদ্ধ জনগণের আন্দোলনকে আরও জোরদার করা হবে বলে মন্তব্য করে গণফোরামের সভাপতি বলেন, মানুষ তার অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারলে প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হবে। লিখিত বক্তব্যে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকার কেড়ে নেওয়া ছাড়া নির্বাচন কোনোভাবে জিততে পারবে না। এবার যদি তারা কেড়ে নিতে চায় তা হলে জনগণকে প্রতিরোধ করতে হবে। সরকারকের প্রতি হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে মান্না বলেন, এ নির্বাচন শুধু আক্ষরিক অর্থে নয় সর্বাগ্রে আমরা ঐক্যফ্রন্ট থেকে তাদের জোরালো সমর্থন দিচ্ছি। আমাদের ঐক্যফ্রন্টের সব কেন্দ্রীয় নেতারা দুই প্রার্থীর প্রচারণায় অংশ নেবে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ অনেকে।