ঢাকা   রবিবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  নাঈমের হাত ধরে এগিয়ে বাংলাদেশ (খেলাধুলা)        আত্মবিশ্বাসের সাথে ভারতের অপেক্ষায় বাংলাদেশ (খেলাধুলা)        পেলের মূর্তি উন্মোচন ব্রাজিলে (খেলাধুলা)        বড় জয়ে লিগ শুরু করলেন বসুন্ধরা কিংসের মেয়েরা (খেলাধুলা)        ২৯ দেশে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস, মৃত্যু বেড়ে ২৩৬০ (আন্তর্জাতিক)        ৪৬ হাজার বছর আগের হর্নড লার্ক পাখির মৃতদেহ! (আন্তর্জাতিক)        এনআরসি-সিএএ নিয়ে মোদির সঙ্গে কথা বলবেন ট্রাম্প (আন্তর্জাতিক)        কাউকে না কাউকে ইরানের সঙ্গে কথা বলতে হবে: মার্কিন সিনেটর (আন্তর্জাতিক)        আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ অস্বীকার করল রাশিয়া (আন্তর্জাতিক)        একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)      

আধুনিক যন্ত্রপাতি পরিচালনায় প্রয়োজন দক্ষ লোক: প্রধানমন্ত্রী

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:19:59 am, 2020-01-29 |  দেখা হয়েছে: 6 বার।

আ.জা. ডেক্স:

রংপুর সিটি করপোরেশনের জন্য যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ক্রয় প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ১১৩ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। প্রকল্পের আওতায় বেশ কিছু আধুনিক যন্ত্রপাতিও কেনা হবে। এ প্রসঙ্গেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রকল্পে শুধু যন্ত্রপাতি কিনলেই হবে না, এগুলো পরিচালনার জন্য দক্ষ জনবলও থাকতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভার সভাপতিত্বকালে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

সভায় মোট ৯টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলোর মোট ব্যয় ৬ হাজার ২৭৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে বৈদেশিক ঋণ ২ হাজার ৯৬২ কোটি ৩২ লাখ। সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সংবাদ ব্রিফিংয়ে অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরেন। সভায় অনুমোদন পাওয়া অন্যতম প্রকল্প হলো রংপুর সিটি কর্পোরেশনের জন্য যানবাহন ও যন্ত্রপাতি কেনা। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু যন্ত্রপাতি কিনলেই হবে না, এগুলো পরিচালনার জন্য দক্ষ জনবল থাকতে হবে। যন্ত্রপাতি কিনে ফেলে রাখা যাবে না। সভায় রংপুর সিটি করপোরেশনের নব-নির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করে বলেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়নে শিগগিরই একজন প্রকৌশলীর নেতৃত্বে একটি টিম রাজশাহী সিটি করপোরেশনে প্রশিক্ষণ নিতে যাচ্ছে। এ প্রকল্পে যেসব যন্ত্রপাতি কেনা হবে সেগুলো ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আছে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের। সে সব ব্যাপারেই তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মেয়র মোস্তাফিজুর রহমানের আশ্বাসের পর একনেক সভায় প্রকল্পটির চূড়ান্ত অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের স্পষ্টভাবে বলে দিয়েছেন শুধু যন্ত্রপাতি কিনলেই হবে না, সেসব পরিচালনায় দক্ষ জনবল থাকতে হবে। টাকা দিয়ে যন্ত্রপাতি কিনে যত্রতত্র ফেলে রাখা যাবে না। প্রধানমন্ত্রীর সংশয় ছিল- আধুনিক যন্ত্রপাতি কিনে ব্যবহারের লোক পাওয়া যায় কি না এ নিয়ে। প্রকল্পের আওতায় রংপুর সিটিতে একটি অ্যাসফল্ট মিক্সিং প্ল্যান্ট, একটি পেভার ফিনিশার মেশিন, দুটি লোডার, একটি ভ্যাকুয়াম সেপটিক ট্যাঙ্ক ক্লিনার, তিনটি ভাইব্রেটরি সয়েল কম্পেক্টর, দুটি টায়ার রোড রোলার, ১০টি গারবেজ কমপেক্টার, একটি ড্রেন ক্লিনিং জেট অ্যান্ড সাকার মেশিন, একটি লংবুম এক্সভেটরসহ আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র কেনা হবে। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, কৃষিমন্ত্রী মো. আবদুর রাজ্জাক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা সভার কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।