ঢাকা   বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  মাধ্যমিকে বিজ্ঞান-মানবিক-বাণিজ্য শাখা না রাখার পক্ষে প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)        উরুগুয়ে ও লন্ডন সফরে রাষ্ট্রপতি (জাতীয়)        আ. লীগে অপরাধ করে কেউ পার পাবে না: ওবায়দুল কাদের (রাজনীতি)        মিথ্যা বলার পুরস্কার থাকলে প্রথমটি পেতেন মির্জা ফখরুল: তথ্যমন্ত্রী (রাজনীতি)        সরকারের নানা উদ্যোগেও কমছে না ঝরে পড়া শিক্ষার্থীর হার (শিক্ষা)        কোহলিকে হটিয়ে শীর্ষে স্মিথ, মুশফিক-মুমিনুলের উন্নতি (খেলাধুলা)        বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়ে দলে নতুন মুখ মাধেবেরে (খেলাধুলা)        বার্সেলোনাকে রক্ষা করলেন গ্রিজম্যান (খেলাধুলা)        ঘরের মাঠে বায়ার্নের কাছে বিধ্বস্ত চেলসি (খেলাধুলা)        অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ (আন্তর্জাতিক)      

ওয়েবসাইট থেকে উধাও আসামের এনআরসি তালিকা!

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:08:38 pm, 2020-02-12 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

ভারতের আসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জি বা এনআরসির তথ্য তাদের ওয়েবসাইট থেকে উধাও হয়ে গেছে। গত বছরের ৩১ আগস্ট এনআরসির চ‚ড়ান্ত তালিকা প্রকাশের পর থেকেই তাদের ওয়েবসাইটে ওই তালিকা দেখা যেতো। কিন্তু গত কিছুদিন ধরে সেই তালিকা আর দেখা যাচ্ছে না। এ নিয়ে আসামের একটা বড় অংশের মানুষদের মধ্যে তৈরি হয়েছে আতঙ্ক। বিশেষ করে চ‚ড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ প্রায় ১৯ লাখ মানুষ আতঙ্কে ভুগছে। এনআরসি নিয়ে তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করেন এমন একজন সমাজকর্মী শাহজাহান আলি বলেন, হঠাৎ করেই এনআরসির তালিকা আর ওয়েবসাইটে দেখা যাচ্ছে না। এটা কেন হল, সেটাও স্পষ্ট নয় বেশিরভাগ মানুষের কাছেই। তবে এনআরসির রাজ্য সমন্বয়ক হিতেশ দেব শর্মা বলছেন যে এটি একটি কারিগরি সমস্যা। তাকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, ক্লাউড স্টোরেজে এই বিপুল পরিমাণ তথ্য রাখা ছিল উইপ্রো সংস্থার সঙ্গে একটি চুক্তির ভিত্তিতে। সেই চুক্তি গতবছর অক্টোবর মাসে শেষ হয়েছে। এর আগে যিনি সমন্বয়ক ছিলেন তিনি ওই চুক্তি পুনর্নবায়ন করেননি। তাই ১৫ ডিসেম্বর থেকে ক্লাউড স্টোরেজ পরিসেবা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে ওই সংস্থাটি। আর আমি দায়িত্ব নিয়েছি ২৪ ডিসেম্বর। তিনি আরও বলেন যে, এই সমস্যা নিয়ে উইপ্রোর সঙ্গে তাদের বৈঠক হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যেই আবারও এনআরসির পূর্ণাঙ্গ তালিকা ওয়েবসাইটে দেখা যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন হিতেশ। এদিকে ওয়েবসাইট থেকে তালিকা উধাও হয়ে যাওয়ার মধ্যে রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছে আসামের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। ইতোমধ্যেই এই ঘটনায় মোদি সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছে তারা। বিরোধীদের অভিযোগ, কোনও বিশেষ অভিসন্ধি থেকেও এই কাজ করা হয়ে থাকতে পারে।