ঢাকা   বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  মিথ্যা বলার পুরস্কার থাকলে প্রথমটি পেতেন মির্জা ফখরুল: তথ্যমন্ত্রী (রাজনীতি)        সরকারের নানা উদ্যোগেও কমছে না ঝরে পড়া শিক্ষার্থীর হার (শিক্ষা)        কোহলিকে হটিয়ে শীর্ষে স্মিথ, মুশফিক-মুমিনুলের উন্নতি (খেলাধুলা)        বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়ে দলে নতুন মুখ মাধেবেরে (খেলাধুলা)        বার্সেলোনাকে রক্ষা করলেন গ্রিজম্যান (খেলাধুলা)        ঘরের মাঠে বায়ার্নের কাছে বিধ্বস্ত চেলসি (খেলাধুলা)        অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ (আন্তর্জাতিক)        কোথায় ছিলেন অমিত শাহ, তার পদত্যাগ করা উচিত: সোনিয়া (আন্তর্জাতিক)        পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনীকে ডাকা উচিত: কেজরিওয়াল (আন্তর্জাতিক)        দিল্লির মসজিদে আগুন, মিনারে হনুমানের পতাকা (আন্তর্জাতিক)      

টি-২০ বিশ্বকাপে নো-বলের জন্য নতুন প্রযুক্তি

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:17:20 pm, 2020-02-12 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. স্পোর্টস:

ক্রিকেটে বোলারদের পায়ের নো-বল ধরতে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু করতে যাচ্ছে ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। চলতি মাসের শেষের দিকে অস্ট্রেলিয়ায় শুরু হতে যাওয়া নারী টি-২০ বিশ্বকাপ থেকেই নো-বলের জন্য নয়া প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু হবে। ইতোমধ্যে নতুন প্রযুক্তির পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে ১২টি ম্যাচে ব্যবহার হয়েছে। নতুন এই প্রযুক্তির মাধ্যমে টেলিভিশন আম্পায়ার বোলারের প্রতিটি বলে পা ফেলার জায়গা পর্যবেক্ষন করবেন। লাইনের বাইরে পা পড়লেই সাথে মাঠের আম্পায়ারকে জানাবেন টেলিভিশন আম্পায়ার। পায়ের নো-বল ছাড়া বাকি অন্য সকল নো-বল অন-ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্বেই থাকছে। বর্তমানে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমে তৃতীয় আম্পায়ার নো-বল পরীক্ষা করেন। এ ছাড়া ব্যাটসম্যানের আউটের পরও অন-ফিল্ড আম্পায়ার বললে নো-বল পরীক্ষা করা হয়।
আইসিসি বলছে, ৪,৭১৭টি ডেলিভারির মাধ্যমে ইতোমধ্যে এই প্রযুক্তির শতভাগ সঠিক সিদ্বান্ত নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে আইসিসির মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালার্ডিচ বলেন, এ প্রযুক্তির মধ্য দিয়ে পায়ের নো-বলে ভুল কমে আসবে। ক্রিকেট সব সময়ই নতুন-নতুন প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে এগিয়ে আছে। নো-বল ডাকা মাঠের আম্পায়ারের জন্য সব সময়ই কঠিন কাজ। তবে এ প্রযুক্তির ব্যবহারে ভুলের হার শূন্যের কোটায় নেমে আসবে। অস্ট্রেলিয়ায় আগামী ২১ ফেব্রæয়ারি থেকে শুরু হবে নারীদের টি-২০ বিশ্বকাপ। শেষ হবে ৮ মার্চ।