ঢাকা   রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জয় পেয়ে শিরোপার আরও কাছে রিয়াল (খেলাধুলা)        বিসিবি মনোবিদ নিয়োগ দিচ্ছে ক্রিকেটারদের জন্য (খেলাধুলা)        আরো একটি সাহসী সিদ্ধান্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের (খেলাধুলা)        যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি হঠাৎ চীনের নরম সুর কেন? (আন্তর্জাতিক)        মাস্ক পরতে রাজি হয়েছেন ট্রাম্প (আন্তর্জাতিক)        এমিরেটস এয়ারলাইন ৯ হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে (আন্তর্জাতিক)        করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে ৩৩০০ কোটি রুপি দিলেন লক্ষী মিত্তল (আন্তর্জাতিক)        বাতাসে ভেসে বেড়ায় করোনাভাইরাস, নতুন নির্দেশিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (আন্তর্জাতিক)        কোভিড-১৯: পরিবারসহ আক্রান্ত তমা মির্জা (বিনোদন)        অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত (বিনোদন)      

বেনাপোলে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ওষুধ ও মোবাইল ফোন জব্দ

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:34:08 pm, 2020-02-12 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. ডেক্স:

যশোরের বেনাপোল চেকপোস্টে কাস্টমস ও কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দারা যৌথ অভিযানে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী যাত্রীর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ওষুধ ও মোবাইল ফোন জব্দ করেছে। যার বাজার মূল্য প্রায় ৮ লাখ টাকা। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ সামগ্রী জব্দ করে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। পাসপোর্টধারী যাত্রী রত্না ঢাকার গুলশান বাড্ডা এলাকার মোজাম্মেলের স্ত্রী ও আবিদ হাসান একই এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে। বেনাপোল কাস্টমস সূত্র জানায়, স্ক্যানিং মেশিনে বড় বড় তিনটি ল্যাগেজে ওষুধের এ চালান ধরা পড়ে। এরপর ল্যাগেজ খুলে দেখা যায় তার মধ্যে ভারতীয় উন্নতমানের পেনিটন সোডিয়াম ইনজেকশন, ইউএসপি ও থ্রমবোফোপ জেল রয়েছে। এ সময় ওই পাসপোর্টধারী যাত্রী তার ল্যাগেজ ফেলে পালিয়ে যায়। অপরদিকে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী অপর যাত্রী রত্না খাতুন ও আবিদ হাসান কাস্টমসের স্ক্যানিং থেকে বের হলে সন্দেহবশত শুল্ক গোয়েন্দারা তাদের বেনাপোল স্থলবন্দর টার্মিনালের ভেতর থেকে আটক করে। এ সময় নারী কাস্টমস কর্মকর্তা দিয়ে তল্লাশি করা হলে রত্নার কাছ থেকে অভিনব কায়দায় লুকানো ১৬টি রেডমি-৮ প্রো মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। শুল্ক গোয়েন্দা মনোয়ার হোসেন বলেন, ওই নারী বোরকার নীচে জিন্স প্যান্টের মধ্যে বিশেষ কায়দায় ১৬টি পকেট বানিয়ে তাতে লুকিয়ে আনছিল মোবাইলগুলো। তার সঙ্গে থাকা আবিদের কাছ থেকে ৩টিসহ মোট ১৯টি মোবাইল জব্দ করা হয়। জব্দকৃত মোবাইলগুলোর মূল্য ২ লাখ ৮৫ হাজার টাকা বলে প্রাথমিকভাবে তিনি জানান। চেকপোস্ট কাস্টমস সুপার এম এ হান্নান বলেন, কাস্টমস ও শুল্ক গোয়েন্দারা যৌথভাবে মোবাইল ফোন ও ওষুধ জব্দ করে। ওষুধ ও মোবাইল ফোনের মোট মূল্য ৭ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। তবে ওষুধের মালিক না পাওয়ায় মালিকবিহীন জব্দ করা হয়েছে। অপরদিকে সরকারি রাজস্ব দেওয়ার জন্য মোবাইলের ডিএম স্লিপ ওই যাত্রীদের দেওয়া হয়েছে। জব্দকৃত পণ্য বেনাপোল শুক্ল গুদামে জমা করা হয়েছে।