ঢাকা   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ঢাকায় পৌঁছেছেন

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:59:50 am, 2017-10-22 |  দেখা হয়েছে: 35 বার।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ঢাকায় পৌঁছেছেন। বেলা পৌনে দুইটার দিকে ভারতীয় বিমানবাহিনীর বিশেষ ফ্লাইটে তিনি ঢাকায় আসেন। যৌথ পরামর্শক কমিশনের (জেসিসি) বৈঠকে যোগ দিতে তাঁর ঢাকায় আসা।

বিকেল সোয়া চারটায় পর সোনারগাঁও হোটেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে জেসিসির সভায় তাঁর যোগ দেওয়ার কথা। এরপর দুই দেশের মধ্যে দুটি চুক্তি সই হওয়ার কথা।

সন্ধ্যা ছয়টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন তিনি।

এরপর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় তাঁর সৌজন্যে সোনারগাঁও হোটেলে নৈশভোজের আয়োজন করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

এ ছাড়া রাত আটটায় সুষমা স্বরাজের বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে।

ঢাকা ও দিল্লির কূটনৈতিক সূত্রগুলো গতকাল শনিবার প্রথম আলোকে জানিয়েছে, সুষমা স্বরাজের সফরের সময় দুই দেশের সম্পর্কের পর্যালোচনার পাশাপাশি রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে আলোচনা হবে। প্রায় দুই মাস ধরে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা–ঢল অব্যাহত থাকায় খুব স্বাভাবিকভাবেই দুই পক্ষের আলোচনায় বিষয়টি গুরুত্ব পাবে।

২০১৪ সালের মে মাসে বিজেপি ক্ষমতায় আসার এক মাস পর ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে তিনি ঢাকায় এসেছিলেন। কংগ্রেস-আওয়ামী লীগ সম্পর্কের বিশেষ মাত্রা আর ৫ জানুয়ারির একতরফা নির্বাচনের কারণে তাঁর সেই সফরটি নিয়ে যথেষ্ট কৌতূহল ছিল বাংলাদেশের রাজনৈতিক মহলে। বিশেষ করে ২০০৯ সালের জানুয়ারি থেকে পরের পাঁচ বছর বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের ‘বিশেষ মাত্রা’য় কোনো খাদ সৃষ্টি হবে কি না, তা নিয়ে সরকারি মহলে কিছুটা হলেও সংশয় ছিল। আর বিজেপি ক্ষমতায় আসায় উৎসাহিত হয়েছিল বিএনপি। তবে ঢাকা সফরের সময় সুষমা স্বরাজ বলে গেছেন, কংগ্রেস শাসনামলে দুই প্রতিবেশীর সম্পর্কে যে অগ্রগতি হয়েছে, সেটি ধরেই সম্পর্কটা এগিয়ে নেবে বিজেপি।

সুষমা স্বরাজের সর্বশেষ ঢাকা সফরের উল্লেখ করে কূটনৈতিক সূত্রগুলো গতকাল আভাস দিয়েছে, এবারের সফরেও তিনি বিশেষ কোনো বার্তা দিতে পারেন। এখন সেই বার্তা কি রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে হবে, নাকি রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে সেটা বলা মুশকিল। তাঁর ঢাকা সফরের পরই সেটি স্পষ্ট হবে।

কাল সোমবার বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনের নতুন চ্যান্সেরি ভবনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন সুষমা স্বরাজ। সেখানে ভারতের আর্থিক সহযোগিতায় ১৫টি প্রকল্পের উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।