ঢাকা   মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  আজ ঢাকায় আসছেন গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        নিরাপদ খাদ্যের বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট (জাতীয়)         ধান পোড়ানোর ঘটনা পরিকল্পিত: খাদ্যমন্ত্রী (জাতীয়)        মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর বিষয়ে বৈঠক চলতি মাসেই (জাতীয়)        খালেদাকে কেরাণীগঞ্জ কারাগারে স্থানান্তরে বিএনপির খুশি হওয়ার কথা: তথ্যমন্ত্রী (রাজনীতি)         সরকার মাদক নিয়ন্ত্রণে সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        ঢাকায় শিশু হাসপাতালের শৌচাগার থেকে নবজাতক উদ্ধার (ঢাকা)        চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলেন রাষ্ট্রপতি (জাতীয়)        মোংলা বন্দরের সক্ষমতা বাড়াতে নানামুখী উদ্যোগ (বিবিধ)        চিকিৎসক-নার্সদের ঢাকায় বদলির তদবির গ্রহণ করা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী (জাতীয়)      

জামালপুরে ই-জোন মাঠে ধর্মসভা

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:16:56 pm, 2018-11-02 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

এম. এ. রফিক : জামালপুরের ই-জোন মাঠে ইজতেমা ইজতেমার বদলে অনুষ্ঠিত ধর্মসভা বিদেশী মেহমানদের বয়ানে শুরু হয়ে আখেরী মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে গতকাল শেষ হয়েছে। জানা গেছে, জেলার দক্ষিণাঞ্চলের দিগপাইত ইউনিয়নের আদর্শ বটতলায় নির্মানাধীন জামালপুর অর্থনৈতিক জোন মাঠে জেলা ইজতেমা বদলে ধর্মসভা তাবলীগ জামাত নিজাম উদ্দিন অনুসারী (মূল ধারা) এর ব্যবস্থাপনায় গত বৃহষ্পতিবার বাদ আসর শুরু হয়ে গতকাল শুক্রবার বাদ আসর আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয়েছে। নিজাম উদ্দিন অনুসারীদের প্রতিপক্ষ ইজতেমা প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে জেলা শহরে ইজতেমা বন্ধের দাবীতে সমাবেশ ও মিছিল করে। তার প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসন এক আদেশ পত্র জারী করেন। ওই আদেশ পত্র মোতাবেক এই ধর্মসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুমতি মোতাবেক সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেন আয়োজকরা। আয়োজক কমিটির সাথে কথা বলে জানা যায় জামালপুর ও পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে আগত বিপুল সংখ্যক মুসল্লীরা এই ধর্মসভায় আসেন। এই ধর্ম সভা সফল করতে কয়েকটি উপকমিটি গঠন করা হয়েছিল। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভান্ডার জামাত, জোরনেওয়ালা জামাত, পাহারা জামাত, সাফায় জামাত, ইনফাক জামাত, বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপনা জামাত, পানি ব্যবস্থাপনা জামাত, জিকিরের জামাত, খেদমতি জামাত উল্লেখযোগ্য। সেই সাথে আগত মুসল্লীদের জন্য বিশাল আকারের প্যান্ডেল করা হয়েছে। সুপেয় পানির জন্য ৩০টি টিউবওয়েল স্থাপন করা হয়েছে, পাঁচশতাধিক স্যানেটারী ও প্রস্রাব খানা নির্মাণ করা হয়েছে। হঠাৎ কোন মুসল্লী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে সার্বক্ষনিক মেডিকেল টিমের ব্যবস্থা ছিল। আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ কন্টোল রুম যথাযথ দায়িত্ব পালন করেছেন। কর্তৃপক্ষ ও উপস্থিত মুসল্লীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এই ধর্মসভায় ভারত ও ইন্দোনেশিয়া থেকে আগত মুরুব্বীরা বয়ান করেছেন, সেই সাথে অসংখ্য জামাত বের হয়ে দেশে বিদেশে ধর্মের কাজে সফরে চলে গেছে। স্থানীয়রা জানান, এই ধর্মসভাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন দোকানের পসরাও বসেছে। পাশ্ববর্তী প্রায় ২/১ কিলোমিটারের মধ্যে অনেক অস্থায়ী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছিল।