ঢাকা   রবিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  বিজয় দিবসে যান চলাচলে ডিএমপির নির্দেশনা (জাতীয়)        ড. কামালের আচরণ ষড়যন্ত্রের একটি অংশ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (রাজনীতি)        নির্বাচনী প্রচারণায় বুধবার সিলেট যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী (রাজনীতি)        লালমনিরহাট সীমান্তে রাবার বুলেটে ৪ বাংলাদেশি আহত, বিএসএফের দুঃখ প্রকাশ (জেলার খবর)         ভাষাসৈনিক বিমল রায় চৌধুরী আর নেই (জাতীয়)         বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ (জাতীয়)        আওয়ামী লীগের ইশতেহার প্রকাশ মঙ্গলবার (রাজনীতি)         সন্ত্রাস করলে কোনো দলই ছাড় পাবে না: ইসি রফিকুল (জাতীয়)        স্বরূপে ফিরতে পারেননি ড. কামাল: ওবায়দুল কাদের (রাজনীতি)        শেষ পর্যন্ত নির্বাচনের মাঠে থাকব: ফখরুল (রাজনীতি)      

নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ আটকাতেই মনোনয়নপত্র বাতিল : ডা. জাহিদ

Logo Missing
প্রকাশিত: 06:17:59 pm, 2018-12-04 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আজ ডেক্সঃ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ড্যাব মহাসচিব ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেছেন, আসন্ন নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ আটকাতেই দেশব্যাপী দলটির মনোনীত প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে নিজ মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) যান ডা. জাহিদ। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। সরকার ও নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে ডা. জাহিদ বলেন, বাংলাদেশে যে গত নবম ও দশম এবং এই যে ১১তম সংসদ নির্বাচন হচ্ছে, এখানেও অনেক প্রার্থী আছেন, যাঁরা দ-প্রাপ্ত এবং যাঁরা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন এবং এখন পর্যন্ত মন্ত্রিত্ব করে যাচ্ছেন। এবং তাঁদের কারোই কিন্তু এবারও মনোনয়নপত্র বাতিলও হয় নাই এবং কারোটার ব্যাপারে আপত্তিও হয় নাই। শুধু আপত্তি হয়েছে আমাদের আটকানোর জন্য বা আমাকে আটকানোর জন্য। সে জন্যই আমরা আপিল করেছি। আপিলে যথাযথ ন্যায়বিচার পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ডা. জাহিদ। গতকাল মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো মনোনয়নপত্র গ্রহণ বা বাতিল আদেশের বিরুদ্ধে ইসিতে আপিল দায়ের চলে। রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেন দেশব্যাপী মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা, যাদের বেশিরভাগই বিএনপি মনোনীত প্রার্থী। গত সেমাবার প্রথম দিন মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন ৮৩ জন। এ ছাড়া নেত্রকোনা-১ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মানু মজুমদারের প্রার্থিতা বৈধ হলেও তাঁর বিরুদ্ধে আপিল করেছেন অপর প্রার্থী শাহ কুতুব উদ্দিন তালুকদার। তিনি অভিযোগ করেন, মানু মজুমদার ঋণখেলাপি। রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গতকাল মঙ্গলবার ও আজ বুধবার পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করতে পারছেন প্রার্থীরা। ৬ থেকে ৮ ডিসেম্বর সেই সব আপিলের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত পুনঃতফসিল অনুযায়ী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।