ঢাকা   মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  আজ ঢাকায় আসছেন গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        নিরাপদ খাদ্যের বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট (জাতীয়)         ধান পোড়ানোর ঘটনা পরিকল্পিত: খাদ্যমন্ত্রী (জাতীয়)        মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর বিষয়ে বৈঠক চলতি মাসেই (জাতীয়)        খালেদাকে কেরাণীগঞ্জ কারাগারে স্থানান্তরে বিএনপির খুশি হওয়ার কথা: তথ্যমন্ত্রী (রাজনীতি)         সরকার মাদক নিয়ন্ত্রণে সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)        ঢাকায় শিশু হাসপাতালের শৌচাগার থেকে নবজাতক উদ্ধার (ঢাকা)        চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলেন রাষ্ট্রপতি (জাতীয়)        মোংলা বন্দরের সক্ষমতা বাড়াতে নানামুখী উদ্যোগ (বিবিধ)        চিকিৎসক-নার্সদের ঢাকায় বদলির তদবির গ্রহণ করা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী (জাতীয়)      

পশ্চিমবঙ্গে দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু নির্মিত হচ্ছে

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:09:46 pm, 2018-12-06 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আজ ডেক্সঃ পশ্চিমবঙ্গের ঐতিহাসিক সেতু হলো ফারাক্কা। সেতুটি তৈরি হয়েছে ফারাক্কা বাঁধের ওপরই। পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার গঙ্গা নদীর ওপর এই বাঁধ ও সেতুর অবস্থান। এই বাঁধের ওপর থেকে চলে গেছে রেললাইন এবং যানবাহন চলাচলের জাতীয় সড়ক। বাঁধে রয়েছে ১০৮টি স্লুইটগেট। এ সেতুর ওপর চাপ কমাতে এর পাশেই দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু নির্মাণ করবে ভারতের জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ বা ন্যাশনাল হাইওয়ে অথোরিটি অব ইন্ডিয়া। পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু নির্মাণের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ৫২১ কোটি ১৯ লাখ ৯৯ হাজার রুপি। এটি নির্মাণ করবে একটি চীনা সংস্থা। তাদের সঙ্গে যুক্ত থাকছে ভারতের সংস্থাও। তিন বছরের মধ্যে এই সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে। বর্তমান ফারাক্কা সেতুর ভাটির দিকে ৫০০ মিটার দূরে নির্মাণ করা হচ্ছে দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু। ইতোমধ্যে এই সেতু এবং সড়কের জন্য অধিগ্রহণ করা হয়েছে জমি। ভারতের জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের মালদহের প্রকল্প পরিচালক দীনেশ কুমার হানসারিয়া বলেছেন, যে সংস্থার হাতে সেতু নির্মাণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তারা অভিজ্ঞ। শিগগিরই সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে। সেতু নির্মাণের জন্য প্রাথমিকভাবে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। নির্মাণকারী সংস্থাকে সেতু নির্মাণের জন্য তিন বছরের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে।