ঢাকা   রবিবার ১৮ অগাস্ট ২০১৯ | ৩ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  অবসরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া (বিবিধ)        খুলনা রেলওয়ে থানায় নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ, তদন্তে কমিটি (খুলনা)        গাজীপুরে মশার ২৫ টন ওষুধ আমদানি করা হয়েছে: মেয়র জাহাঙ্গীর (জেলার খবর)        ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে দুই হাজারের বেশি ডেঙ্গু রোগী (জাতীয়)        কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন (জেলার খবর)        ফের হাইকোর্ট ওসি মোয়াজ্জেমের জামিন আবেদন (আইন ও বিচার)        আগামী বছর থেকে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করা হবে: কৃষিমন্ত্রী (কৃষি ও প্রকৃতি)        দেশের সব ক্ষেত্রে সমন্বিত উন্নয়ন হচ্ছে: শিল্পমন্ত্রী (জাতীয়)        দুর্নীতির মামলায় নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের নাজির গ্রেফতার (জেলার খবর)        খালেদার ২ মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ১ সেপ্টেম্বর (আইন ও বিচার)      

গাজীপুরে বেতন-ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে সড়ক অবরোধ করে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:31:17 pm, 2019-02-10 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আজ ডেক্সঃ বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ আরও কয়েকটি দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এক ঘণ্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে একটি গাজীপুরের একটি কারখানার শ্রমিকেরা। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার শিরির চালা বাঘের বাজার এলাকার ইভিন্স টেক্সটাইলস লিমিটেডের শ্রমিকেরা এ বিক্ষোভ করেন। জয়দেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আলী জিন্নাহ বলেন,সকালে শ্রমিকেরা কারখানায় গিয়ে কর্মবিরতি শুরু করে।এক পর্যায়ে তারা পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে।এ সময় ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ গিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার অশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নিলে এক ঘণ্টা পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে বলে এ পুলিশ কর্মকর্তা জানান। কারখানার অপারেটর শাহ জামাল বলেন, বেতন, হাজিরা বোনাস, সরকারি ছুটি, বার্ষিক অর্জিত ছুটি, টিফিন বিল বাড়ানো এবং বেতন মাসের ১-২ তারিখে প্রদানসহ শ্রমিকেরা বিভিন্ন দাবি জানিয়ে আসলেও কর্তৃপক্ষ তাতে রাজি হয়নি। তাই তারা বাধ্য হয়ে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে বলে জামাল জানান। কারখানার জিএম মো. জিহাদুল ইসলাম বলেন, টেক্সটাইল শ্রমিকদের জন্য নির্ধারিত বেতন ছয় হাজার ৩৫৪ টাকা দেওয়া হলেও তারা গার্মেন্টস শ্রমিকদের মত নূন্যতম বেতন আট হাজার ৩০০ টাকা দাবি করছে। শুধু তাই নয়, আরো কিছু দাবিতে তারা আন্দোলন করছে। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে শ্রমিকদের বুঝানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে কারখানার এ কর্মকর্তা জানান।