Sunday, June 13, 2021
Home জাতীয় অফিস আদেশে ক্ষুব্ধ বিপিসির অধীন সাতটি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীরা

অফিস আদেশে ক্ষুব্ধ বিপিসির অধীন সাতটি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীরা

আ.জা. ডেক্স:

ক্ষোভে ফুঁসে উঠছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) অধীনে থাকা ৭টি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীরা। বিপিসির এক অফিস আদেশকে কেন্দ্র করে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ক্ষুব্ধ শ্রমিক-কর্মচারীরা বিপিসির অফিস আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। তা নাহলে কর্মবিরতি পালনসহ বিপিসি ঘেরাওয়ের মতো কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে। তবে বিপিসি থেকে বলা হচ্ছে, কেবল অডিট আপত্তি নিষ্পত্তির জন্য অফিস আদেশটি দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের দুর্ভাবনার কারণ নেই। বিপিসি সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সম্প্রতি বিপিসি এক চিঠিতে সংস্থাটির অধীনস্থ কোম্পানিগুলোর সঙ্গে শ্রমিক-কর্মচারীদের চুক্তির ক্ষেত্রে কী কী অতিরিক্ত সুবিধা দেয়া হয়েছে এবং আরো কী কী অযৌক্তিক সুবিধা দাবি করা হচ্ছে তা নির্ধারণে কমিটি করে দেয়া হয়। কিন্তু বিপিসির এ উদ্যোগকে নিজেদের সুযোগ-সুবিধা কাটছাঁটের পাঁয়তারা হিসেবে দেখছে পদ্মা, মেঘনা, যমুনাসহ বিপিসির অধীন ৭টি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীরা। চিঠিটি প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই ক্ষোভে শ্রমিক-কর্মচারীরা ক্ষোভে ফুঁসছে। বিষয়টিকে তারা বিপিসির অযাচিত হস্তক্ষেপ হিসেবে আখ্যায়িত করছে। শ্রমিক-কর্মচারীদের মতে, দ্বিপক্ষীয় আলোচনা ও সমঝোতার মাধ্যমে শ্রমিক-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। তার আগে চুক্তির মাধ্যমে ভোগ করা কোনো সুযোগ-সুবিধাকে অতিরিক্ত সুবিধা বলা যাবে না। আর চুক্তি নিয়ে আলোচনা চলাকালে শ্রমিক-কর্মচারীদের পক্ষ থেকে নানা সুযোগ-সুবিধা চাওয়া হয়ে থাকে। কোনো দাবি অযৌক্তিক মনে হলে তা কর্তৃপক্ষ মেনে নেয় না। এমন পরিস্থিতিতে বিপিসি আগ বাড়িয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের সুবিধাকে অযৌক্তিক দাবি করে তা শনাক্ত করার নামে যে কমিটি করেছে তা গ্রহণযোগ্য নয়। কারণ বিপিসির অধীনে হলেও তেল বিপণন প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি। সেগুলো কোম্পানি আইন দিয়ে পরিচালিত হয়। ওই কারণে বিপিসি চাইলেই ইচ্ছাকৃতভাবে কোনো সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিতে পারে না।

সূত্র জানায়, দুই বছর পর পর বিপিসির অধীনে থাকা তেল কোম্পানিগুলোর শ্রমিক-কর্মচারীদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের (সিবিএ) সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিদের আলোচনার মাধ্যমে শ্রমিক-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা নির্ধারণ হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে কোনো কারণে সমঝোতা না হলে শ্রম অধিদপ্তরের প্রতিনিধির মধ্যস্থতায়, অর্থাৎ ত্রিপক্ষীয় আলোচনায় ওই সুযোগ-সুবিধা নির্ধারণ করা হয়। শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রতিনিধি ও কোম্পানি কর্তৃপক্ষ একমত হওয়ার পরই তা প্রস্তাব আকারে কোম্পানিগুলোর নিজ নিজ বোর্ডসভায় উত্থাপন ও অনুমোদন করা হয়। কিন্তু দুই বছর পার হয়ে কয়েক মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও এবার কোনো কোম্পানিরই শ্রমিকদের সঙ্গে কোনো চুক্তি হয়নি। বরং নানা টালবাহানায় তা আটকে রাখায় জ্বালানি খাতের প্রায় আড়াই হাজার শ্রমিক-কর্মচারী হতাশায় ভুগছে।

সূত্র আরো জানায়, বিগত ১৭ মে বিপিসির ঊর্ধ্বতন মহাব্যবস্থাপককে (নিরীক্ষা) আহবায়ক করে ১০ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি গঠন করে দেয় বিপিসির সচিব। তাতে পদ্মা, মেঘনা, যমুনাসহ বিপিসির ৭টি অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিকে সদস্য রাখা হয়েছে। ওই কমিটিকে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। কিন্তু ওই অফিস আদেশ জারির পর থেকে শ্রমিক-কর্মচারীরা কোম্পানিগুলোতে প্রতিবাদ সমাবেশ করছে। ধারাবাহিকভাবে একই কর্মসূচি অন্য কোম্পানিগুলোতেও পালন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত তেল বিপণন কোম্পানিগুলোর শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ অয়েল অ্যান্ড গ্যাস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের ব্যানারে তেল খাতের শ্রমিক-কর্মচারীরা।

এদিকে আন্দোলন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অয়েল অ্যান্ড গ্যাস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি সাদেকুর রহমান ও মহাসচিব মুহাম্মদ এয়াকুব জানান, শ্রমিক-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বিপিসির পক্ষ থেকে যে চিঠি দেয়া হয়েছে তা অযাচিত। তাছাড়া বিপিসি সচিব মানহানিকর যে শব্দ ব্যবহার করে অফিস আদেশ জারি করেছে সেটি নিয়েও শ্রমিক-কর্মচারীদের আপত্তি রয়েছে। তাই ওই অফিস আদেশ বাতিল করতে হবে। নতুবা আন্দোলনের চলমান কর্মসূচি আরো কঠোর হবে।

অন্যদিকে এ বিষয়ে বিপিসি সচিব মো. লাল হোসেন জানান, কোম্পানিগুলো বিধিবদ্ধ নিয়মে চলে। তাই কোম্পানিগুলো চাইলেই কাউকে ইচ্ছেমতো সুযোগ-সুবিধা দিতে পারে না। শ্রমিক-কর্মচারীদের দেয়া প্রান্তিক সুযোগ-সুবিধা নিয়ে অনেক অডিট আপত্তি রয়েছে। ওই অডিট আপত্তি নিষ্পত্তি করতেই শ্রমিক-কর্মচারীরা কী ধরনের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে তা জানতে কমিটি করে দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

৬ দফার ভেতরেই নিহিত ছিল স্বাধীনতার এক দফা: প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: ঐতিহাসিক ৬ দফার ভেতরেই স্বাধীনতার এক দফা নিহিত ছিল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির...

স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেয়া হবে এসএসসি পরীক্ষা: শিক্ষাবোর্ড

আ.জা. ডেক্স: চলমান করোনাভাইরাসের মহামারী পরিস্থিতিতে সব কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে...

১৩ হাজার ৯৮৭ কোটি টাকার সম্পূরক বাজেট পাস

আ.জা. ডেক্স: চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ১৩ হাজার ৯৮৭ কোটি ২৭ লাখ ৩২ হাজার টাকার সম্পূরক বাজেট সংসদে...

করোনায় আরও ৩০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৭০

আ.জা. ডেক্স: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৯...

Recent Comments