Friday, December 9, 2022
Homeজাতীয়আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকা উচিত ছিল : ওবায়দুল কাদের

আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকা উচিত ছিল : ওবায়দুল কাদের

আ.জা. ডেক্স:

জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে অন্ধকারের শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে দাবি করে সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ঘটে যাওয়া সা¤প্রদায়িক ঘটনা প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমরা ভাবতে পারিনি এ রকম ঘটনা ঘটবে। আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকা উচিত ছিল।’ বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে মেধাবৃত্তি ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক যে শক্তি-এরা বিষধর সাপ। এ বিষধর সাপ সুযোগ পেলেই ছোবল মারবে এবং সেটাই ঘটেছে এবারের দুর্গাপূজায়। এসব ঘটনা আমাদের অবাক করে দিয়েছে, আমরা ভাবতে পারিনি, এরকম ঘটনা ঘটবে। আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকা উচিত ছিল। কারণ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এ অন্ধকারের শক্তি এখন মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।’ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনতে সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

এ সময় বিএনপির প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অনেকে বলেন, বিএনপি জামায়াত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আমি আপনাদের বলতে চাই, জামায়াত আর বিএনপির ভেতরে ভেতরে যে মধুর পিরিতি-এই বন্ধন কোনো দিন ছিন্ন হবে না। জামায়াত ছাড়া বিএনপি অচল, এটা প্রমাণ হয়ে গেছে। কাজেই জামায়াতকে নিয়েই তারা অগ্রসর হবে। আর জামায়াতেরও বিএনপি ছাড়া নির্ভরযোগ্য কোনো ছাতা নেই, যার নিচে তারা আশ্রয় নেবে। সা¤প্রদায়িক শক্তির ঠিকানা একটা, সেটা হচ্ছে বিএনপি।’ পঁচাত্তরের হত্যাকাÐ একাত্তরের পরাজয়ের প্রতিশোধ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘একাত্তরে যারা পরাজিত হয়েছিল, তারাই দেশি-বিদেশি নীলনকশায় এই হত্যাকাÐ ঘটিয়েছিল। বাংলাদেশের জন্মের চেতনায়, মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনায় আঘাত এনেছিল। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ২১ বছর সেই শক্তি বিষবৃক্ষ ডালপালা বিস্তার করেছে। এদের ডালপালা আজ অনেক দূর চলে গেছে। এদের শেকড়ও অনেক গভীরে চলে গেছে। মাঝে মাঝে মনে হয়, আসলে এরা সক্রিয়। সুযোগ পেলেই ছোবল মারে। এই সা¤প্রদায়িক অপশক্তি বিষধর সাপ। সুযোগ পেলেই ছোবল মারবে, তার প্রমাণ এবারের দুর্গাপূজা।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘সা¤প্রদায়িক অপশক্তি কিন্তু তৎপর। তারা বুঝে ফেলেছে, শেখ হাসিনার সরকারকে ভোটে হারানো যাবে না। আন্দোলনেও জনগণ সাড়া দেবে না। কারণ, দেশের মানুষ শেখ হাসিনার ওপর খুশি। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব, অর্জন, উন্নয়নে সারা বিশ্ব তাঁকে সম্মান করে।’ ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী বছর বেশ কয়েকটি মেগা প্রকল্প উদ্বোধন হবে। এটা বিএনপির অন্তর্জালার কারণ। এটাই সাম্প্রদায়িক শক্তির গাত্রদাহের কারণ। এগুলো উদ্বোধন হলে তারা চোখে অন্ধকার দেখবে। বিএনপি এমন এক দল, যে দল পূর্ণিমার ঝলমলে আলোয় অমাবশ্যার অন্ধকার দেখে। তারা সরকারের উন্নয়ন দেখে না।’ এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল স্বপন, দপ্তর সম্পাদক ববিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।
এদিকে, আজ ১৮ অক্টোবর শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিশেষ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপস্থিত বক্তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments