Thursday, January 28, 2021
Home জামালপুর ইসলামপুরের ১২টি ইউনিয়নের ৭টির নেই পরিষদ ভবন

ইসলামপুরের ১২টি ইউনিয়নের ৭টির নেই পরিষদ ভবন

মোহাম্মদ আলী:
ইসলামপুরের ১২টি ইউনিয়নের মধ্যে ৭টিরই নেই সরকারি পরিষদ ভবন। এদের কোনোটি ভাড়া করা ঘরে আবার কোনোটি চেয়ারম্যানের বাড়িতে গড়ে উঠেছে অস্থায়ী পরিষদ। দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন সেবা প্রত্যাশী জনগণ আর বাধাগ্রস্ত হচ্ছে পারিষাদিক স্বাভাবিক কাজ কর্ম। পরিষদের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রাণ সামগ্রীরও অপব্যাবহার হচ্ছে বলে মনে করছেন ইউনিয়নবাসী। জানা যায়, ইসলামপুর উপজেলার মোট ১২টি ইউনিয়ন। এর মধ্যে ৫টির স্থায়ী সরকারি পাকা পরিষদ ভবন থাকলেও ৭টি’র যেমন ইসলামপুর সদর, সাপধরী, নোয়ারপাড়া, চিনাডুলি বেলগাছা ও গোয়ালেরচর ইউনিয়নের কোনো পরিষদ ভবন নেই। পারিষাদিক নিত্য নৈমিত্তিক কাজকর্ম চালিয়ে নিতে ওইসব পরিষদের চেয়ারম্যানরা কেউ অন্যের ঘর ভাড়া নিয়ে কেউ নিজের বাড়ির আঙ্গিনায় গড়ে তুলেছেন পরিষদ। এতে করে কাঙ্খিত সেবা পেতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ ও পারিষাদিক স্বাভাবিক কর্মকান্ডে বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে মনে করছেন, সংশ্লিষ্ট পরিষদের ভোটার ও ইউপি সদস্যরা। গোয়ালেরচর ইউনিয়নের ভোলাকি পাড়া গ্রামের হারুন-অর রশিদ ও বিধবা জবেদা জানান, তাদের ইউনিয়নের অভ্যান্তরে কোনো পরিষদ ভবন নেই।

উপজেলা সদরে চেয়ারম্যান তার বাসার পাশে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে গড়ে তুলেছেন পরিষদ। একটি জন্ম নিবন্ধন ও একটি জাতিয়পত্র বা অন্যান্য পারিষাদিক প্রয়োজনে তাদের কে মাইলের পর মাইল পেরিয়ে আসতে হয় সদরে। এতে করে তাদেরকে অতিরিক্ত সময় ও অর্থ ব্যয় হয়। এছাড়াও যাতায়াত ক্ষেত্রে ভোগান্তী তো আছেই। কোনো কোনো দিন কাজের উদ্দেশ্যে গিয়ে চেয়ারম্যান বা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে না পাওয়া যাওয়ায় একই কাজে তাদেরকে বার বার বার যেতে হয়, এতে করে তাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলেও জানান তারা। নাম না প্রকাশ শর্তে চিনাডুলি ইউনিয় পরিষদের একজন ইউপি সদস্য বলেন, ইউনিয়ন পরিষদগুলো এমনিতেই চেয়ারম্যানের কর্তৃত্বে চলে। তারপর সেটা যদি হয় তার বাড়িতে তাহলে তার দাপট দেখে কে? আমরা আমাদের ন্যায্য দাবি তো দুরের কথা জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো জোড় গলায় আমরা বলতে পারি না। কারণ পরিষদ চেয়ারম্যানের বাড়িতে। সেখানে আমাদের প্রতিদিন যেতে হয়। পরিষদ ভবন যদি চেয়ারম্যানের বাড়ি না হয়ে ইউনিয়নের অন্যকোনো জায়গায় থাকতো তাহলে চেয়ারম্যানের ভয়মুক্ত হয়ে স্বাধীনভাবে আমাদের দাবি দাওয়াগুলো তুলে ধরতে পারতাম। চিনাডুলি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুছ ছালাম বলেন, নতুন পরিষদ ভবন নির্মাণ সংক্রান্ত আপাদত আমাদের কোনো পরিকল্পনা নেই। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার, ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাজহারুল ইসলাম বলেন, যেসকল ইউনিয়নের সরকারি স্থায়ী পাকা পরিষদ ভবন নেই, সেগুলোকে চিহ্নিত করে তা নির্মাণের জন্য প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

করোনার টিকার অগ্রাধিকার প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: করোনাভাইরাসের টিকা প্রদানে অগ্রাধিকারপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদে টাঙ্গাইল-৬ আসনের...

এন্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার কমাতে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব

আ.জা. ডেক্স: মানবজাতি বিপন্ন হতে পারে নীরবে বিকশিত এমন জীবাণুনাশক ওষুধ বা এন্টিবায়োটিকের অকার্যকর হওয়া ঠেকাতে অবিলম্বে বৈশ্বিক...

৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: বাংলাদেশ ৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বুধবার বিকাল সাড়ে...

সাংবাদিকদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: ঝুঁকি ভাতা এবং পেনশনসহ সাংবাদিকদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। গতকাল...

Recent Comments