Friday, June 21, 2024
Homeজামালপুরইসলামপুরে বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রস্তুত করণ টপোগ্রাফি সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শন

ইসলামপুরে বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রস্তুত করণ টপোগ্রাফি সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শন

লিয়াকত হোসাইন লায়ন : জামালপুরের ইসলামপুরে বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রস্তুত করণ সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো: আলমগীর হোসেন। উপজেলার পার্থশী ইউনিয়নের শসারিয়া বাড়ি এলাকায় টপোগ্রাফি সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শন করেন তিনি। জানা গেছে,জামালপুর, গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম জেলার ১৯ টি বন্যা কবলিত উপজেলায় প্লাবন মানচিত্র প্রস্তুতকরণের মাধ্যমে স্থানীয় পর্যায়ে বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রচার করা হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়নে উন্নয়ন সহযোগী ওহঃবৎহধঃরড়হধষ ঋঁহফ ভড়ৎ অমৎরপঁষঃঁৎধষ উবাবষড়ঢ়সবহঃ (ওঋঅউ) আর্থিক সহায়তায় এবং জবমরড়হধষ ওহঃবমৎধঃবফ গঁষঃর-ঐধুধৎফ ঊধৎষু ডধৎহরহম ঝুংঃবস (জওগঊঝ) কারিগরি সহায়তায় বাস্তবায়নাধীন এ প্রকল্পের মাধ্যমে বন্যা মৌসুমে ভয়েস মেসেজের মাধ্যমে দ্রুত বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রদান করা হবে। যাতে বন্যা উপদ্রুত এলাকাবাসী তার মোবাইল ফোনে প্রাপ্ত এই তথ্য কাজে লাগিয়ে জীবিকার ক্ষয়ক্ষতি হ্রাসের পাশাপাশি জীবন-যাপন এবংসম্পদের নিরাপত্তা উন্নয়নে সক্ষম হবে। প্রভাতী প্রকল্পের ডিডিএম অংশের এই সার্ভেতে ব্যবহার করা হচ্ছে অত্যাধুনিক লাইডার সেন্সরসমৃদ্ধ ড্রোন যা টপোগ্রাফি সার্ভের মাধ্যমে বন্যা ঝুঁকিসম্পন্ন এলাকাসমূহের ডিজিটাল এলিভেশন মডেল বা ভূমিরূপ তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে যা পরবর্তীতে কাজে লাগিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নদীর পানি সমতল তথ্য ও গাণিতিক বিশ্লেষণের মাধ্যমে বন্যার আগাম সতর্কবার্তা প্রস্তুত করা হবে।এছাড়া এই প্রকল্পের আওতায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অধীনে বাংলাদেশের সকল জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ডে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জন্য অনলাইন পোর্টাল তৈরি করা হয়েছে যাতে তথ্য খুব সহজেই হালনাগাদ করা যাবে। প্রকল্পের কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিকতায় গত ৩০ নভেম্বর ২০২৩ থেকে জামালপুর জেলার ৪ টি উপজেলায় পর্যায়ক্রমে পরিচালিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে গাইবান্ধা জেলার সার্ভে কাজ সম্পন্ন হয়েছে। চলমান সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শনে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান টিটু,চেয়ারম্যান ইফতেখার আলম,ইউপি সচিব সাজেদুল ইসলামসহ অন্যান্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Most Popular

Recent Comments