Friday, July 1, 2022
Homeদেশজুড়েজেলার খবরএকসঙ্গে ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম, আজীবন চিকিৎসা ফ্রি

একসঙ্গে ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম, আজীবন চিকিৎসা ফ্রি

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় একসঙ্গে তিনটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন রাশিদা বেগম নামে নারী। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ৩ কন্যা সন্তানের জন্মের পর বুধবার (২৫ মে) সকালে ওই নারী তার সন্তানদের নিয়ে সুস্থ অবস্থায় হাসপাতাল থেকে নিজ বাসায় ফিরেছেন।

একসঙ্গে ৩ সন্তানের জন্ম হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সবার মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেছেন। পাশাপাশি ওই ৩ শিশু ও প্রসূতি মায়ের চিকিৎসা সেবা আজীবন ফ্রি ঘোষণা করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের আলী হোসেনের স্ত্রী রাশিদা বেগমের প্রসব ব্যাথা উঠলে তাকে গত ২৩ মে (সোমবার) বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার প্রাইম হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আসে ওই প্রসূতির সজনরা। পরে সিজারিয়ানের মাধ্যমে ৩ কন্যা সন্তানের জম্ম দেন ওই প্রসূতি।

প্রাইম হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের আলী হোসেনের স্ত্রী রাশিদা বেগমের প্রসব ব্যথা উঠলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে রাশিদার লোকজন। পরে ডা. ফৌজিয়া জামানের নেতৃত্বে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তিনি ৩ সন্তানের জম্ম দেন।

ডা. ফৌজিয়া জামান বলেন, ওই প্রসূতির শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে পরিবারের লোকজন হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আল্ট্রাসনোগ্রাফির মাধ্যমে আগেই জানা ছিলো তার গর্ভে ৩টি শিশু রয়েছে। হাসপাতালে আনার পর প্রসূতির গর্ভের শিশুদের নড়াচড়া অপেক্ষাকৃত কম এবং প্রসূতির প্রেসার ছিল বেশি।

তাই দ্রুত সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে ৩টি কন্যা শিশু ভূমিষ্ট করানো হয়। বর্তমানে সুস্থ্য আছেন প্রসূতি এবং তার তিন কন্যা। আজ (বুধবার) সকালে প্রসূতি এবং তার তিন কন্যাকে রিলিজ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে প্রাইম হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এই প্রথম একসঙ্গে তিন সন্তান প্রসবের ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ হাসপাতালে সেবা নিতে আসা সবার মাঝে মিষ্টি বিতরণ করেন এবং প্রসূতি মা ও তিন সন্তানের আজীবন চিকিৎসা সেবা ফ্রি ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের নির্বাহী পরিচালক সিকদার মুহাম্মদ আক্তারুজ্জামান বলেন, এই হাসপাতালে প্রসূতি মা এবং সদ্য জন্ম নেওয়া ৩ শিশুর চিকিৎসা সেবা আজীবন ফ্রি ঘোষণা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments