Thursday, June 13, 2024
Homeআন্তর্জাতিকগাজায় হামলা আরও জোরদার করার ঘোষণা নেতানিয়াহুর

গাজায় হামলা আরও জোরদার করার ঘোষণা নেতানিয়াহুর

ফিলিস্তিনের গাজা ভূখণ্ডে চলমান হামলা আরও জোরদার করার ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। চলমান এই যুদ্ধ আরও সম্প্রসারিত করার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেছেন, এটা দীর্ঘ যুদ্ধ হবে এবং আমরা লড়াই শেষের কাছাকাছি অবস্থানে নেই।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েল আগামী দিনগুলোতে হামাসের বিরুদ্ধে লড়াই আরও জোরদার করবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। তিনি তার দলের সদস্যদের বলেছেন, তিনি সোমবার সকালে গাজা পরিদর্শন করেছেন এবং সেখানে ইসরায়েলের সামরিক অভিযান ‘শেষ হওয়ার কাছাকাছি নেই’।

নেতানিয়াহু এমন এক সময়ে এই মন্তব্য করলেন যখন কয়েকদিন আগেই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ইসরায়েলকে গাজায় তাদের হামলার তীব্রতা কমানোর কথা বলেছিলেন। তবে নেতানিয়াহু হামাসকে ধ্বংস করে বন্দিদের ইসরায়েলে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তিনি তার লিকুদ পার্টির এক সভায় বলেন, গাজা সফরে গিয়ে তিনি যে সৈন্যদের সাথে দেখা করেছিলেন, তারা ইসরায়েলকে ‘শেষ পর্যন্ত’ লড়াই চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। নেতানিয়াহুর ভাষায়, ‘আমরা থামছি না। আমরা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি এবং আমরা আগামী দিনে লড়াই আরও জোরদার করতে যাচ্ছি। এটি দীর্ঘ যুদ্ধ হতে চলেছে যা এখনও শেষ হওয়ার কাছাকাছি নেই।’

এদিকে সোমবার পার্লামেন্টে ভাষণ দেওয়ার সময় গাজায় আটক বন্দিদের অবিলম্বে মুক্তির দাবিতে তাদের স্বজনদের হেনস্তার শিকার হন বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, ‘আমরা সামরিক চাপ দেওয়া ছাড়া সকল বন্দিকে মুক্ত করতে সক্ষম হব না … আমরা যুদ্ধ বন্ধ করব না।’

তবে বন্দিদের পরিবারগুলো গ্যালারি থেকে ‘এখন! এখন!’ বলে চিৎকার করতে থাকেন।

ইসরায়েলি ও আরব মিডিয়া বলছে, মিসর দুই পক্ষের মধ্যে যুদ্ধবিরতির পরিকল্পনার প্রস্তাব দিয়েছে। কাতারের মাধ্যমে সমঝোতা হওয়া পূর্ববর্তী একটি অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি চুক্তির অধীনে ফিলিস্তিনি বন্দিদের বিনিময়ে গাজা থেকে কয়েক ডজন বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল।

এখন পর্যন্ত, ইসরায়েল এবং হামাস উভয়ই যুদ্ধবিরতির ক্রমবর্ধমান আহ্বানের বিরোধিতা করেছে। মূলত স্থায়ী যুদ্ধবিরতি ছাড়া কোনও চুক্তিতে রাজি নয় হামাস।

টিএম

Most Popular

Recent Comments