Thursday, April 25, 2024
Homeদেশজুড়েজেলার খবরচোর বলায় শিশু রোমানকে হত্যা করে আশিক

চোর বলায় শিশু রোমানকে হত্যা করে আশিক

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় নিখোঁজের একদিন পর তামাক খেত থেকে শিশু রোমান মিয়ার (৬) মরদেহ উদ্ধারের ঘটনার রহস্য উদঘাটনসহ অভিযুক্ত আশিকুর রহমান আশিককে (১৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুরে নিজ কার্যালয়ের হল রুমে সংবাদ সম্মেলনে অভিযুক্ত কিশোরের জবানবন্দির আলোকে ঘটনার বর্ণনা দেন পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম।

এর আগে শনিবার (৩০ মার্চ) বিকেলে উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের ত্রিমোহনী সেতু বাজার এলাকার একটি তামাক খেত থেকে শিশু রোমানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সে ওই গ্রামের আমিনুর ইসলামের ছেলে।

গ্রেপ্তার আশিকুর রহমান আশিক একই এলাকার মুছা মিয়ার ছেলে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, গ্রেপ্তার আশিক সম্প্রতি প্রতিবেশী একজনের একটি ছাগল চুরি করে, যা দেখে ফেলে শিশু রোমান। এই চুরির দায়ে স্থানীয়ভাবে বসা বৈঠকে আশিককে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে শিশু রোমান দেখা হলেই আশিককে চোর, ছাগল চোর বলে বিদ্রুপ করত। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে আশিক।

পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক শুক্রবার (২৯ মার্চ) বিকেলে স্থানীয় সেতু বাজারের পাশে রোমানকে দেখতে পেয়ে ডেকে নিয়ে পাশের তামাক খেতে খেলাধুলা করেন আশিক। একপর্যায়ে শিশু রোমানকে গলা টিপে হত্যা করে তামাক খেতে সামান্য মাটি ও তামাক পাতা দিয়ে ঢেকে রেখে পালিয়ে যায় আশিক।

এদিকে শিশু রোমানের সন্ধান না পেয়ে এলাকায় মাইকিং করে তার পরিবার। পরে শনিবার বিকেলে ওই তামাক খেতে কাজ করতে গিয়ে কৃষকরা রোমানের মরদেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ওইদিনই অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় হত্যা মামলা করে রোমানের পরিবার।

পুলিশ সূত্র জানায়, তথ্যপ্রযুক্তিসহ নানা কৌশল অবলম্বন করে আদিতমারী থানা পুলিশ হত্যার রহস্য উদঘাটন করে আশিককে সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করলে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Most Popular

Recent Comments