Tuesday, June 18, 2024
Homeজাতীয়জড়িতদের নাম পাওয়া গেছে, দ্রুতই গ্রেপ্তার : ডিবি প্রধান

জড়িতদের নাম পাওয়া গেছে, দ্রুতই গ্রেপ্তার : ডিবি প্রধান

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুনের ঘটনায় জড়িতদের নাম পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এমন দাবি করেন তিনি।

হারুন অর রশীদ বলেন, ট্রেনে আগুন লাগানো রাজনীতির কোনো পার্ট না, এটা এক ধরনের দুর্বৃত্তায়ন। যারা ট্রেনের বগিতে আগুন লাগিয়েছে তারা ছাড় পাবে না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ ডিবি পুলিশ কাজ করছে। অনেকের নাম পেয়েছি, আশা করছি তাদের দ্রুতই গ্রেপ্তার করা হবে।

আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই ট্রেনে আগুন

ডিবি প্রধান বলেন, ভাড়াটিয়া হিসেবে হোক আর টাকার লোভে হোক, যারা এই কাজ করছেন সেই জায়গা থেকে সরে এসে নাশকতা-দুর্বৃত্তায়ন বন্ধ করুন। কোনো বড় ভাইয়ের নির্দেশে এই কাজটি করা মোটেও ঠিক নয়।

তিনি বলেন, যে কোনো ঘটনা ঘটার পর ডিবি সেটির ছায়া তদন্ত করে। রেলে নাশকতা ও দুর্বৃত্তায়নের কারণে শিশুসহ চারটি তাজা প্রাণ চলে যায়। যারা এ কাজটি করেছে তারা ২৮ তারিখের পর থেকেই নির্বাচনকে ভণ্ডুল করার জন্য এবং সাধারণ মানুষকে আতঙ্কিত করার জন্য এমন কাজ করছে। বিচ্ছিন্ন কয়েকটি জায়গায় তারা বাসে আগুন লাগাচ্ছে। বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছি। নতুন করে তারা এখন ট্রেনে আগুন লাগানো শুরু করেছে।

সাধারণ মানুষের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদ বলেন, যারা নাশকতা করতে চায় তাদের নাম-নম্বর নিয়ে আমাদের জানাবেন, তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনব।

নির্বাচন নিয়ে হারুন বলেন, আমি মনে করি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। সে লক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে। কেউ যদি নাশকতা করে, দুর্বৃত্তায়ন করে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরও বলেন, এক-দুইটা গাড়িতে আগুন লাগালেই কিংবা ককটেল ফাটালেই নির্বাচন বন্ধ হয়ে যাবে তা নয়। আমরা প্রতিটি জায়গায় কাজ করছি। আমরা গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করছি, চেকপোস্ট রয়েছে, টহল কার্যক্রম বাড়ানো হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) ভোরে রাজধানীর তেজগাঁও রেলস্টেশনের আগে চলন্ত ট্রেনে (মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস) দুর্বৃত্তরা আগুন দেয়। এতে পুড়ে মারা যান নারী-শিশুসহ চারজন।

এআর/এমএসএ

Most Popular

Recent Comments