Thursday, December 1, 2022
Homeস্বাস্থ্যজনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে স্বাস্থ্যসেবা দিতে হিমশিম খেতে হয়

জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে স্বাস্থ্যসেবা দিতে হিমশিম খেতে হয়

জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে আমাদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে হিমশিম খেতে হয় বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) দুপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০২২ উপলক্ষে কারওয়ান বাজারে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন তিনি।


জাহিদ মালেক বলেন, প্রতিবছর আমাদের জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের যে জনসংখ্যা আছে তাদের সেবা দিতে স্বাস্থ্যসেবা কর্মী বাড়াতে হবে। হাসপাতালগুলোতে শয্যার সংখ্যাও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার চাহিদার তুলনায় কম।

তিনি বলেন, আমাদের যে জনসংখ্যা আছে তাদের সবার জন্য সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু যদি জনসংখ্যা বাড়তে থাকে, তাহলে সম্ভব নয়। তবে জনসংখ্যা অবশ্যই সম্পদ।


কোয়ালিটি জনসংখ্যা প্রয়োজন উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তাদেরকে শিক্ষা, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। শেষ পর্যায়ে কর্মেরও ব্যবস্থা করতে হবে। আমাদের শিল্প বাড়ছে, তার চেয়ে জনসংখ্যা আরও বেশি বাড়ছে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রকৃতির ভারসাম্যও নষ্ট হচ্ছে। বন্যা হচ্ছে, খরা হচ্ছে, কৃষি উৎপাদন কমে যাচ্ছে। সম্প্রতি সিলেটে বন্যায় অসংখ্য মানুষ দরিদ্র হয়ে গেছে, জমি, রাস্তাঘাট নষ্ট হয়েছে। এভাবে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হয়েছে। এই অবস্থায় জনসংখ্যা বাড়তে থাকলে বিপদে পড়তে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সাইফুল হাসান বাদল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সিহান আরা বানুসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে জনপ্রতিনিধি ও পরিবার পরিকল্পনার বিভিন্ন কর্মকর্তাদের কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়। এছাড়া কাজের স্বীকৃতি হিসেবে অনলাইন, প্রিন্ট মিডিয়া ও টেলিভিশনের সাত জন সাংবাদিককে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট দেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments