Friday, September 30, 2022
Homeজামালপুরজামালপুরে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা, ঘাতক গ্রেপ্তার

জামালপুরে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা, ঘাতক গ্রেপ্তার

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ পৌরসভার গাবতলী এলাকায় মো. ইল্লাল সরদার নামে এক যুবকের ছুরিকাঘাতে মো. সোহান মিয়া নামে এক যুুবককে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত ৮ মামলার আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। আজ বুধবার দুপুরে মালিবাগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর। তিনি বলেন, চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের পরপরই সিআইডির এলআইসি শাখা ছায়া তদন্ত শুরু করে। ঘটনাস্থল ও আশপাশ বিভিন্ন স্থান থেকে প্রাপ্ত প্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে ঘটনার সঙ্গে মামলার প্রধান আসামি মো. ইল্লাল সরদারের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়। গতকাল মঙ্গলবার রাতে এলআইসি’র একটি চৌকস দল অভিযান পরিচালনা করে ডিএমপি’র খিলগাঁও থানাধীন ত্রিমোহনী এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত আসামি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে ইল্লাল জানায়, কিছুদিন আগে গাবতলী বাজার থেকে দেওয়ানগঞ্জ বাজারে যাওয়া নিয়ে ফকির আলী নামে এক অটো রিকশা চালকের সঙ্গে তার তর্ক-বিতর্ক হয়। এ সময় ইল্লাল অটো চালককে বেধড়ক মারধর করে। ময়মনসিংহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের কার্যালয়ে মেকানিকাল পদে কর্মরত নিহত মো. সোহান মিয়া ওই অটোচালকের আত্মীয় হন। সরকারি ছুটিতে সে বাড়িতে আসেন। ঘটনার দিন গত ১৫ই মে বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৫টায় তিনি গাবতলী বাজারে যান

এ সময় সোহান মিয়া তার আত্মীয় অটো চালক ফকির আলী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সমস্যার সমাধানের জন্য ইল্লালের কাছে ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চান। ইল্লাল সরদার এ বিষয়ে কথা না বলে এক পর্যায়ে ভিক্টিম সোহান মিয়াকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এবং তার সাথে থাকা ধারালো চাকু দিয়ে সোহানের বুকের মধ্যে আঘাত করলে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান।
পরবর্তীতে ইল্লাল সরদার দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় সোহান মিয়াকে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। এ বিষয়ে নিহত সোহানের বাবা মো. ছামিউল ইসলাম ইল্লাল সরদারকে প্রধান আসামি করে গত ১৬ মে দেওয়ানগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলা নম্বর- ২৩/১৫০। আসামি ইল্লালের বিরুদ্ধে খুন, চুরি, নারী নির্যাতন, মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য ধারার আইনে মোট ৯টি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে ১টি মামলা তদন্তাধীন ও অন্য ৮টি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন এই সিআইডি কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments