Tuesday, August 9, 2022
Homeজামালপুরজামালপুরে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র: বিভাগের মধ্যে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরস্কৃত

জামালপুরে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র: বিভাগের মধ্যে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরস্কৃত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবায় অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে ময়মনসিংহ্ বিভাগের ৪টি জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠত্ব¡ অর্জনের পুরস্কার লাভ করেছে। এতে অভিনন্দন জানিয়েছেন জামালপুর জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তী রায়। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসে পুরষ্কার গ্রহণ করেন জামালপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের প্রধান ডাঃ উম্মে হাবিবা।

জানা যায় প্রতিষ্ঠার ৬০ বছরের ইতিহাসে জামালপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র প্রথমবারের মতো শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়। ময়মনসিংহ বিভাগের মধ্যে মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবায় অসামান্য অবদানের জন্য প্রতিষ্ঠান ক্যাটাগরিতে এবার শ্রেষ্ঠ সেবাদান কেন্দ্র বিবেচনায় সম্মননা পাওয়ায় জেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সকল সদস্যদের মধ্যে আনন্দ, উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা গেছে। ২১ জুলাই ময়মনসিংহ জেলার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত পুরুষ্কার ও সনদ বিতরণী সভায় উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ এর বিভাগীয় কমিশনার, বিভাগীয় পরিচালক পরিবার পরিকল্পনা, জেলা প্রশাসক ময়মনসিংহ, উপ-পরিচালক পরিবার পরিকল্পনা বিভিন্ন জেলা থেকে আগত কর্মকর্তা বৃন্দ। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনের নিকট থেকে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসাবে ক্রেস্ট এবং সনদ গ্রহণ করেন জামালপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের প্রধান ডাঃ উম্মে হাবিবা।

উল্লেখ্য জামালপুর জেলার মা ও শিশু কল্যাণকেন্দ্রে ডাঃ উম্মে হাবিবা বিগত ৩ বছর ৮ মাস পূর্বে ২০১৮ সনের ১৬ অক্টোবর যোগদান করেন। জানা যায় তৎকালীন উপ-পরিচালক ডাঃ সাজদা ই জান্নাত তনু এর দুরদর্শী নের্তৃত্বে জামালপুর জেলার মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ব্যাপক উন্নয়ন ও সংস্কার কাজ হাতে নেওয়া হয়। সেই ধারাবাহিকতায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের স্বাস্থ্য সেবা এবং নরমাল ডেলিভারী ও সিজারিয়ান অপারেশনের সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। ডাঃ উম্মে হাবিবা নিয়মিত সকাল বেলায় রোগী দেখেন এবং সময় মতো অপারেশন সম্পন্ন করেন। জামালপুর জেলার মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের স্বাস্থ্য সেবা অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে উল্লেখ যোগ্য হারে বেড়ে গিয়েছে। বর্তমান উপ-পরিচালক মোঃ মাজহারুল হক চৌধুরী যোগদান করার পর উন্নয়ন ধারাবাহিকতা অব্যহত রয়েছে বলে জানা যায়।

ডাঃ উম্মে হাবিবা জানান জামালপুর জেলার মানুষজনের আস্থা ও নির্ভরতার জায়গা হচ্ছে মা ও শিশুকল্যাণ কেন্দ্র। এ বিষয়ে বিভিন্ন রোগীদের মধ্যে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সেবার মান নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা যায়। ইতোপূর্বে মহাপরিচালকসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জামালপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে ডাঃ উম্মে হাবিবাসহ অন্যান্যদের কাজের প্রশংসা করেন। এখানে রোগীদের সেবার মান অন্য যে কোন সময়ের চেয়ে এখন ভালো বলে একাধীক সেবাপ্রার্থী মন্তব্য করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রতিষ্ঠানের বাউন্ডারী সীমানা উঁচু করার মধ্যদিয়ে নিরাপত্তা বেষ্ঠনী তৈরি হয়েছে। হাসপাতালে টাইলসসহ পরিস্কার পরিছন্নতার বিষয়ে ব্যাপক নজরদারি করা হয়। মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের সামনের পরিত্যাক্ত ডোবাটিকে একটি সুন্দর সুইমিং পুলের আকারে শান্ত বাধানো পুকুরে রূপান্তরিত হয়েছে। হাসপাতালে একটি নতুন এম্বুলেন্স যুক্ত হয়েছে। ডাঃ উম্মে হাবিবা এই প্রতিষ্ঠানে যোগদানের পর থেকেই সর্বোচ্চ চেষ্টায় মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছে বলে প্রতিষ্ঠানের কর্মচারিরা জানান। উম্মে হাবিবা বলেন এটা আমার একার কৃতিত্ব নয় সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা আর উন্নয়ন ধারাবাহিকতায় আজকের এই পুরষ্কার। এজন্য আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমার এই কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি এবং জামালপুর জেলার স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই অর্জন সকলের। আমি আশা করি আমার এই কাজের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments