Friday, January 27, 2023
Homeজামালপুরজামালপুর-৫ (সদর) আসনে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিলেন ফারুক

জামালপুর-৫ (সদর) আসনে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিলেন ফারুক

জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির সহ-সভাপতি ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী নিজেকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামালপুর-৫ (সদর) আসনে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

রবিবার গোপালগঞ্জে জাতির পিতার সমাধিস্থলে জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রথম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ ঘোষণা দেন। এর আগে তিনি নবগঠিত জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। এরপর দুপুর ২টায় জাতির পিতার সমাধিস্থলে জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা: আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে সভায় প্রথমেই বক্তব্য দেন কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান স্বপন। তিনি বলেন, সদর উপজেলা কমিটির সকল নেতারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাথে থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডের সংগঠনের গতি ফিরিয়ে আনতে হবে। ওয়ার্ড কমিটি গোছানোর পরে ইউনিয়ন পর্যায়ের সকল কমিটি শক্তিশালী করে শক্তি সঞ্চয় করবো। 

যাতে যে কোন মুহূর্তে যেন প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে এক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে ১৫টি ইউনিয়নের ১৫ হাজার নেতাকর্মী নিয়ে মিছিল করতে পারি। তিনি বলেন, ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী যিনি বিগত ১৯টি বছর অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দলকে নিজের শ্রম, মেধা ও অর্থ দিয়ে জেলা আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। আমরা কখনো ভাবতেই পারিনি তিনি কখনো এই পদ থেকে সরে যাবেন। 

তিনি যেন আমাদের পাশে থাকেন এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি। এরপর প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী। তিনি বলেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির বিরুদ্ধে যে ষড়যন্ত্র চলছে। এই কমিটিকে অনেকেই পছন্দ করেন না, যারা হাতে গোনা কয়েকজন। 

সার্বিকভাবে এই কমিটি গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে নেতাকর্মীদের মাঝে। কতিপয় উচ্চাবিলাসী আওয়ামী লীগের নেতা রয়েছে সদরে যারা মনে মনে চায় এই কমিটি অকার্যকর হোক। সেই দিকটা খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, আমরা জামালপুর জেলার আওয়ামী লীগ পরিবার মির্জা আজমের নেতৃত্ব ঐক্যবদ্ধ ছিলাম, আছি, থাকতে চাই। যারা এই ঐক্যবদ্ধ নষ্ট করতে চায় আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখে এবং ঐক্যকে অটুট থাকলে ষড়যন্ত্রকারীরা ঝিমিয়ে পড়বে। তিনি বলেন, আমি কারো নাম বলতে চাই না।  

সংসদ সদস্যদের অসুবিধা থাকতেই পারে। তবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাথে টেলিফোনে হলেও যোগাযোগ করা উচিত ছিল। আগামী নির্বাচনে জামালপুর সদরে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা মাঠকর্মী হিসাবে তাকে নির্বাচিত করতে বাধ্য। বর্তমান সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেনকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, তার পেছনে আমাদের শ্রম ঘাম রয়েছে। আমাদেরও অর্থ রয়েছে। তিনি নবগঠিত উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটিকে একরকম প্রত্যাখান করে ষড়যন্ত্রের সাথে লিপ্ত রয়েছেন। 

তিনি ষড়যন্ত্র করতে চান। কিন্তু আমরা ষড়যন্ত্রে বিশ্বাস করি না। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বিশ্বাস করি। আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল কর্মসূচি বাস্তবায়নে ঐক্যবদ্ধ থাকবো। দলীয় স্বার্থে জেলা আওয়ামী লীগের বৈধ আদেশগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে পালন করার আহবান জানান তিনি। তবে জেলা আওয়ামী লীগের অবৈধ কথা বললে সেগুলো বিবেচনা করে দেখবো, সেই কথাগুলো মানা যাবে কি যাবে না।  

তিনি বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক। শেখ হাসিনার কর্মী। দলের গঠনন্ত্র এবং শেখ হাসিনার নির্দেশ মেনে দল পরিচালনা করবো। বঙ্গবন্ধুর মাজারে শপথ করে তিনি বলেন, যতদিন পর্যন্ত জাতির জনক শেখ মুজিবের আদর্শ বাংলার মাটিতে প্রতিষ্ঠিত না হবে। ততদিন পর্যন্ত আমরা রাজপথে আছি। রাজপথে থাকবো। আমরা সেইদিনই ঘরে ফিরে যাবো যেদিন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ হবে। আগামী বছরের জানুয়ারিতে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। এই নির্বাচনে জামালপুর সদর-৫ (সদর) আসনে যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হোক না কেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর কন্যার নির্দেশ আদেশ মেনে রাজনীতি করি। 

বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে তার নির্বাচন ঐক্যবদ্ধভাবে করবো। তিনি এ সময় বলেন, আমি সব সময় আগে যেভাবে আপনাদের পাশে থেকেছি। আগামীতেও থাকতে চাই। তিনি এ সময় নিজেকে জামালপুর সদর-৫(সদর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে প্রার্থী হিসাবে দরখাস্ত করেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, জাতির পিতার কন্যা যদি  মনোনয়ন দেন তাহলে সবাইকে তার সাথে কাজ করার আহবান জানান। তবে অন্য কাউকে যদি মনোনয়ন দেন সে ক্ষেত্রেও তাকে নির্বাচিত করার কথা ব্যক্ত করেন তিনি। 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments