Saturday, February 4, 2023
Homeশিক্ষাঢাবি শহীদুল্লাহ্ হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ঢাবি শহীদুল্লাহ্ হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রসায়ন বিভাগের স্নাতক (সম্মান) ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী হৃদয় আহম্মেদ চ্যাম্পিয়ন এবং ফলিত গণিত বিভাগের এমএস শ্রেণির শিক্ষার্থী কাজী হাবিব উল্লাহ রানার্স-আপ হয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।

খেলা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাবেদ হোসেনের সভাপতিত্বে উভয় অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাথলেটিকস কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. অসীম সরকার, কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. শাহজাহান আলীসহ বিভিন্ন হলের প্রাধ্যক্ষ এবং আবাসিক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান মেধাবী হওয়ার পাশাপাশি দক্ষ ক্রীড়াবিদ হিসেবেও নিজেদের গড়ে তোলার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘এক্ষেত্রে খেলার মাঠে, শ্রেণিকক্ষে ও গবেষণাগারে শিক্ষার্থীদের সমান পদচারণা থাকতে হবে। সৃজনশীল মেধা বিকাশের মাধ্যমেই একজন শিক্ষার্থী ভালো, মানবিক মূল্যবোধসম্পন্ন, দক্ষ ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে। 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে শিক্ষার্থীদের সকল ক্ষেত্রে দক্ষ করে গড়ে তোলার বিকল্প নেই।’

এক্ষেত্রে নিয়মিত পড়াশোনা ও গবেষণার পাশাপাশি বছরব্যাপী সহশিক্ষামূলক কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহশিক্ষা কার্যক্রম জোরদার করার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, ‘এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মেধা ও মননের বহিঃপ্রকাশ ঘটবে, নেতৃত্বের গুণাবলী বিকশিত হবে এবং তারা পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে সক্ষম হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments