Thursday, June 13, 2024
Homeজাতীয়‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া জনগণ কোনো নির্বাচন মানবে না’

‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া জনগণ কোনো নির্বাচন মানবে না’

জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য কামরুল আহসান হাসান বলেছেন, আওয়ামী লীগ নিজেদের বিরুদ্ধে নিজেরাই ডামি প্রার্থী দিয়ে নির্বাচনকে তামাশায় পরিণত করেছে। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোনো নির্বাচনই দেশের জনগণ মানবে না। যে কোনো মূল্যে ৭ জানুয়ারির প্রহসনের নির্বাচন প্রতিহত করা হবে।

রোববার (২৪ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর গেন্ডারিয়ায় সড়ক অবরোধকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে এদিন সকাল-সন্ধ্যা অবরোধের সমর্থনে রাজধানীর গেন্ডারিয়ায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের নেতাকর্মীরা।

এসময় কামরুল আহসান বলেন, ক্ষমতাসীন সরকার জগদ্দল পাথরের মতো জাতির ঘাড়ে চেপে বসেছে। এই অবৈধ সরকার বিগত ১৫ বছরে শুধুমাত্র ব্যাংকগুলো থেকেই প্রায় ৯২ হাজার কোটি টাকা লুটপাট করেছে। দেশের সম্পদ লুট করে বিদেশে পাচার করেছে। এই ফ্যাসিস্ট সরকার জনগণের মতামতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে, গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠিয়ে দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করেছে। তারা ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো আরেকটি প্রহসনের নির্বাচন করতে সব ধরনের আয়োজন সম্পন্ন করেছে।

তিনি বলেন, বাকশালি সরকার দেশের বিচার ব্যবস্থাকে ধ্বংসের অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে। আদালতকে ব্যবহার করে ফরমায়েশি রায়ের মাধ্যমে সাজা প্রদান করে প্রতিবাদী কন্ঠকে স্তব্ধ করে দিতে চায়। বিরোধী মতের উপর অব্যাহত জুলুম নিপীড়ন চালিয়ে পুরো বাংলাদেশকেই কারাগারে রূপান্তর করেছে। ইতিহাস থেকে আমরা দেখতে পাই, জনগণকে নির্যাতন করে অতীতে কোনো স্বৈরাচার সরকার টিকে থাকতে পারেনি, এই সরকারও টিকে থাকতে পারবে না।

সংসদ ভেঙে দিয়ে সরকারের পদত্যাগ এবং কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করার দাবিতে একই দিন সকালে খিলগাঁও, সেগুনবাগিচা, ধানমন্ডি, মাতুয়াইল, জুরাইন-দয়াগঞ্জ সড়কসহ রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নেতাকর্মীরা।

জেইউ/এমএসএ

Most Popular

Recent Comments