Thursday, May 26, 2022
Homeআন্তর্জাতিকতিনবার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো নিউজিল্যান্ড

তিনবার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো নিউজিল্যান্ড

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

নিউজিল্যান্ডে ৮ দশমিক ১ মাত্রা সহ পরপর তিনটি শক্তিশালী ভ‚মিকম্প আঘাত হেনেছে। ভ‚মিকম্পের প্রতিটিই ছিল সাত মাত্রার ওপরে। ভ‚মিকম্পের পর জারি করা সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে পূর্ব উপকূলে এখনো জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা রয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সবশেষ জনবসতিহীন কারমেডিক আইল্যান্ডে ৮ দশমিক ১ মাত্রার ভ‚মিকম্পটি আঘাত হানে। নিউজিল্যান্ডের উপকূল থেকে এক হাজার কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে কেরমাডেক আইল্যান্ডের অবস্থান। এরপরই দেশটির জাতীয় জরুরি সংস্থা পূর্ব উপকূলীয় এলাকায় সুনামি সতর্কতা জারি করে। যদিও এলাকাবাসীকে সরিয়ে নেয়ার পর তা প্রত্যাহার করা হয়। এরই মধ্যে অনেক এলাকা থেকে স্থানীয়দের উচুঁ এলাকায় সরে যেতে দেখা গেছে। এখন পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি। দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দীপপুঞ্জ নিউ ক্যালেডোনিয়া এবং ভানুয়াতুরেও জলোচ্ছ্বাসের সতর্কতা জারি করেছে। স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘প্রচন্ড ঝাঁকুনিতে আমার ঘুম ভেঙে যায়। আমি এক লাফে খাট থেকে দরজার দিকে যাই।’ আরো একজন জানান, ‘এটি খুবই শক্তিশালী ছিলো। সুনামি সতর্কতার পরপর আমাদের শহর থেকে উঁচু স্থানে আসি। শহরটিকে ভুতের শহরের মতো লাগছিলো।’ ভয়াবহ জলোচ্ছ¡াসের শঙ্কা কেটে গেলে নিজ বাড়িতে ফেরার অনুমতি দেয়া হয় জনগণকে। তবে সৈকত এড়িয়ে চলার নির্দেশ বহাল আছে। এ ছাড়া নিউ ক্যালেডোনিয়া ও ভানোয়াতুতেও বিপজ্জনক ঢেউয়ের বিষয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছিলো। এর আগে, স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোরে প্রথমে গিসবার্ন থেকে ১৮০ কিলোমিটার দূরে ৭ দশমিক ২ মাত্রার প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। এরপর কারমাডেক আইল্যান্ডে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার দ্বিতীয় ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে নিউজিল্যান্ডের উপকূলীয় এলাকা। এ ছাড়া আগে-পরে নিউজিল্যান্ড উপকূলে অনুভূত হয় ৫ থেকে ৬ মাত্রার আরও অন্তত ৩৯টি কম্পন। এদিকে, দক্ষিণ আমেরিকার পেরু, ইকুয়েডর চিলিসহ কিছু অংশেও ৩ মিটার পর্যন্ত জলোচ্ছাসের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এই দুটি দেশের উপক‚লে ১০ ফুট উচ্চতার ঢেউ দেখা গেছে। দক্ষিণ আমেরিকার পেরু, ইকুয়েডর ও চিলিতে ১ মিটার ঢেউ উপকূলে পৌঁছে। ভূমিকম্পের উপত্তিস্থল থেকে সুনামি হতে পারে এমন শঙ্কা প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্ক কেন্দ্র জানায়, ভ‚মিকম্পের কেন্দ্রস্থল থেকে ৩০০ কিলোমিটার পর্যন্ত সুনামি হতে পারে। তাই ওই উপকূলীয় এলাকায় সবাইকে সতর্ক থাকার পাশাপাশি বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার আহবান জানানো হয়েছে।

এদিকে, নিরাপদে আছেন নিউজিল্যান্ড সফরে দেশটিতে অবস্থান করা বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। বিসিবির পরিচালক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, সবাই ভালো আছেন। এর আগে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) গভীর রাতে, দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় নর্থ আইল্যান্ডে সাত দশমিক দুই মাত্রার ভ‚মিকম্প আঘাত হানে। ভ‚মিকম্পের কেন্দ্রস্থলটির নিকটতম প্রধান শহর হলো গিসবার্ন, যার জনসংখ্যা প্রায় ৩৫ হাজার ৫০০ জন। নর্থ আইল্যান্ডের গিসবর্ন শহরের কাছে মাটির ১০ কিলোমিটার নিচে ভ‚মিকম্পের কেন্দ্র বলে জানা গেছে। মাত্র গত সপ্তাহে ক্রাইস্টচার্চের ভয়াবহ ভ‚মিকম্পের এক দশক পার করলো নিউজিল্যান্ড। এর আগে ২০১১ সালে ক্রাইস্টচার্চ শহরে ৬.৩ মাত্রার এক ভ‚মিকম্পের আঘাতে ১৮৫ জনের প্রাণহানি ঘটে। ধ্বংস হয় বহু ঘরবাড়ি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments