Monday, June 24, 2024
Homeজাতীয়দুর্নীতির অভিযোগে দক্ষিণ সিটির প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে মামলা

দুর্নীতির অভিযোগে দক্ষিণ সিটির প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে মামলা

দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ, অদক্ষতা ও দুর্নীতির অভিযোগে প্রকৌশল বিভাগের অঞ্চল-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে এ বিষয়ে একটি দপ্তর আদেশ জারি করেন ডিএসসিসির সচিব আকরামুজ্জামান।

সচিব আকরামুজ্জামান জানান, দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ, অদক্ষতা ও দুর্নীতির অভিযোগে ওই নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্মচারী চাকরি বিধিমালা ২০১৯ এর বিধি ৪৯ এর (ক), (খ), (ঘ) ও (৩) মতে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়েছে।

জানা গেছে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রকৌশল বিভাগ, অঞ্চল-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ৭০ নং ওয়ার্ডের মেন্দিপুর আল হেলাল ক্লাব সংলগ্ন খেলার মাঠের উন্নয়ন কাজে দুর্নীতির বিষয়টি ওঠে এসেছে।

প্রধান প্রকৌশলী এ বিষয়ে একটি চিঠিতে উল্লেখ করেছেন প্রকৌশল বিভাগ অঞ্চল-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে প্রদত্ত নকশা ও দাপ্তরিক প্রাক্কলন অনুসারে কাজটি ৮২ লাখ ১১ হাজার ৯৩১ টাকার ক্রয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাস্তব অগ্রগতি ৩০ শতাংশ হয়েছে। আর মেয়াদ অতিক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১১ মাস আগে। এছাড়া মেয়র সেই স্থান পরিদর্শনকালে কাজটি চলমান পাওয়া যায়নি। প্রধান প্রকৌশলী কর্তৃক দ্রুত নথি উপস্থাপনের নির্দেশনা প্রদান করার ২৮ দিন পর চুক্তির মূল ডিজাইন পরিবর্তন করে ভেরিয়েশন অর্ডার অনুমোদনের জন্য সংশ্লিষ্ট নথির নোটানুচ্ছেদ-৬২ এ প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে।

যে কারণে ব্যয় ১৪.২৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। পিপিআর ২০০৮ এর বিধি অনুযায়ী ক্রয় কার্য বাস্তবায়নে ও পরিচালনায় ব্যর্থতার জন্য তার কাছে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা চেয়ে প্রধান প্রকৌশলী কর্তৃক পত্র জারি করা হয়। কাজটি সময়মত বাস্তবায়নে ব্যর্থতার সুনির্দিষ্ট কোন ব্যাখ্যা বা সীমানা প্রাচীরের ফাউন্ডেশন মৌলিক পরিবর্তন করার বিষয়ে কোন ব্যাখ্যা পরিলক্ষিত হয়নি। যা গ্রহণযোগ্য নয়। খেলার মাঠ সম্পূর্ণ বাস্তবায়নে ২ কোটি ৫৬ লাখ টাকার প্রয়োজন, যা মূল চুক্তিমূল্যের ২১১ শতাংশ অধিক। ফলে প্রমাণিত হয়েছে যে, তিনি বাস্তব ভিত্তিক ডিজাইন ও দাপ্তরিক প্রাক্কলন তৈরি করেননি, বাস্তবায়নে প্রযোজ্য বিধি অনুসারে তত্ত্বাবধান, পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনা করেননি, সময়সীমা সমাপ্ত হওয়ার পূর্বে কাজ বাস্তবায়নের স্বার্থ বিবেচনা করেননি এবং চুক্তির শর্ত অনুসারে করেননি। এ ধরনের কার্যক্রমের ফলে নাগরিক সুবিধাদি উন্নয়নে বাধা তৈরি, চুক্তি বাস্তবায়নে বা নিষ্পত্তিকরণে জটিলতা তৈরি করায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে।

এই অবস্থায় প্রকৌশল বিভাগ, অঞ্চল-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্মচারী চাকুরি বিধিমালা অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ, অদক্ষতা ও দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়েছে।

Most Popular

Recent Comments