Monday, January 17, 2022
Home জামালপুর দেওয়ানগঞ্জে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত

দেওয়ানগঞ্জে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত

খাদেমুল ইসলাম:

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে নদ-নদীতে বন্যার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। লক্ষাধিক পরিবার পানি বন্দী এবং ৮০/৯০ হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। হাজার হাজার একর জমি জমার ফসল, বাড়ি ঘর, পথ ঘাট, জনপদ সব পানিতে তলিয়ে গেছে। স্বাভাবিক জীবন যাত্রা চরম ব্যাহত হচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানাগেছে, শনিবার দুপুর পর্যন্ত যমুনা নদীর বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে গত ২৪ ঘন্টায় ৩ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদ সীমার ১১০ সেন্টিমিটার উপরে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। তৃতীয় দফা বন্যায় উপজেলার পথ, ঘাট, পুল, কালভার্ট তীব্র পানির স্রোতে ধ্বসে যাওয়ায় দুর পাল্লা ও আভ্যন্তরীন যোগাযোগ প্রায় বন্ধ হয়েছে। দেওয়ানগঞ্জ-ইসলাপুর রোডে বন্যা শুরু থেকেই ট্রেন চলাচল বন্ধ। ঢাকা মুখে বাসও। দেওয়ানগঞ্জ-বেলতলী বাজার-জিলবাংলা চিনিকল-মলমগঞ্জ বাজার-বটতলা বাজার- দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশন-খাদ্য গোদাম-উপজেলা পরিষদ-সরকারি হাসপাতাল-টাকিমারী-খোলাবাড়ী-মন্ডল বাজার-বাহাদুরাবাদ-ঝালোরচর-কাঠারবিল-তারাটিয়া-সানন্দবাড়ী-ডাংধরা রোডে অর্ধ শতাধিক স্থানে পথ ঘাট, পুল কালভার্ট ভেঙ্গে গিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা এক প্রকার ভেঙ্গেই পড়েছে।

বিশেষ করে দেওয়ানগঞ্জ সরকারি এ.কেএম কলেজ, মন্ডল বাজার, তারাটিয়ায় কান্দির গ্রামে ভাঙ্গনে জন দুর্ভোগ চরমে। পোল্যাকান্দি ব্রীজের দু‘পাশে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। কান্দিরগ্রামে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ। তারাটিয়া-পাথরের চর সড়কে ১৫০ ফিট বন্যার ¯্রােতে ধ্বসে যাওয়ায় এলাকায় সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ হয়েছে। স্থানীয় সমাজসেবক লাল মিয়া মহরী জানান, এ ভাঙ্গনের ফলে শুধু যোগাযোগই বন্ধ হয়নি, পাশাপাশি বহু বাড়ি ঘর ও শতশত একর উর্বর জমিতে বালি মাটি পড়ে যাওয়ায় কৃষকের মাথায় হাত। দেওয়ানগঞ্জে কৃষি অফিস সংলগ্ন একটি বড় কালোজাম গাছ পানির তোড়ে উপড়ে গেছে। সানন্দবাড়ী মৌলভীর চর সড়ক ভেঙ্গে গেছে। উত্তর মুকির চর জল ব্রীজ পানিতে ডোবে গেছে। দেওয়ানগঞ্জ সদরে ভাসমান ব্রীজ তীব্র পানির স্রোতে ভেঙ্গে গেছে। এতে চরকালিকাপুর, মাইছানির চর এবং সদরের লোকজনের চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। উপজেলার এমন কোন কাঁচা পাকা সড়ক নাই যেখানে ক্ষতি হয়নি। বর্ষণ, বন্যা, পাহাড়ী ঢল, নদী ভাঙ্গন, বন্যার পানি ও করোনা সব মিলিয়ে অশান্তিতে রয়েছে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা বাসী। তৃতীয় দফায় বন্যার পানি বেড়েই চলেছে। সেই সাথে বাড়ছে মানুষের যোগাযোগ সংকট, দুঃখ দুর্দশা, খাদ্যাভাব, গো-খাদ্য সংকট, শিশু খাদ্য সংকট, আবাসন সংকট পানি বাহিত রোগ ব্যাধি সহ নানা সমস্যায় মানুষ দিশেহারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে নতুন চমক

আ.জা. বিনোদন: বিনোদনের সেরা মাধ্যম হচ্ছে চলচ্চিত্র। সেই চলচ্চিত্র জগতে বইতেছে এখন নির্বাচনী হাওয়া। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির...

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে পরীমনির ভোট দিতে বাধা নেই

আ.জা. বিনোদন: হালের ক্রেজ পরীমনির বিরুদ্ধে মামলার পর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি তার সদস্যপদ সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করে।...

প্রেমের গুঞ্জন নিয়ে মুখ খুললেন প্রভা

আ.জা. বিনোদন: সম্প্রতি সাদিয়া জাহান প্রভা, ইমরানের সঙ্গে তার প্রেম করছেন- এমন গুঞ্জন ছড়ায় শোবিজপাড়ায়। এ বিষয়ে মুখ...

ঠোঙা তৈরি করে ২০ পয়সা পেতেন সঞ্জয়

আ.জা. বিনোদন: বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগে কারাগারে ঠাঁই পেয়েছিলেন। জেলে থাকার সময় তিনি...

Recent Comments