Monday, June 27, 2022
Homeজাতীয়নারীদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে পারলে অসমতা দূর করা সম্ভব: স্পিকার

নারীদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে পারলে অসমতা দূর করা সম্ভব: স্পিকার

আ. জা. ডেক্স:

জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, নারীদের তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞান অর্জনে এগিয়ে যেতে হবে। আধুনিক যুগে এগিয়ে যেতে নারীদের যন্ত্র নয়, দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে পারলে লিঙ্গ বৈষম্য, অসাম্য দূরীকরণ সম্ভব হবে। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) আয়োজিত ‘পাঁচ দশকে বিভিন্ন পেশায় নারীর অগ্রগতি, সমস্যা ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক আলোচনা ও সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ৫০ বছরে নারী সমাজের অনেক অগ্রগতি হয়েছে। অনেক বাঁধা অতিক্রম করে নারীরা একটি স্থান দখল করেছেন। দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশের চাইতে বাংলাদেশ লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণে সফল হয়েছে। শিক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের নারীরা অনেক এগিয়ে রয়েছেন। অনেক প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে তাদের এ জায়গায় আসতে হয়েছে।

স্পিকার বলেন, আজ ঘরে ঘরে মেয়েরা উচ্চশিক্ষা লাভ করে কর্মসংস্থানের চেষ্টা করছেন। কর্মক্ষেত্রেও বিভিন্ন সেক্টরে পুরুষের সঙ্গে সমানতালে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে আমাদের নারীদের নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। দেশের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রয় নারী উন্নয়ন ও অগ্রগতির কথা বলা হয়েছে। সরকার সেগুলো নিয়ে কাজ করছে। সংবিধানের ২৮ অনুচ্ছেদে নারী-পুরুষের সমতার কথা বলা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশের সকল স্থানে নারীদের সুযোগ তৈরি করা হচ্ছে। জাতীয় সংসদে নারী আসন বৃদ্ধি করা হয়েছে। সাধারণ আসনগুলোতে পুরুষের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে জয়লাভ করে সংসদে আসছেন। নারীদের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ বিষয়ে স্পিকার বলেন, আমাদের নারীদের সম্ভাবনা অবাধ তাতে কোনো সন্দেহ নেই, তবে বর্তমানে নারীদের কর্মসংস্থান আরো বাড়াতে তাদের তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ করে তুলতে হবে। এর মাধ্যমে তারা দেশের জনশক্তিতে রূপান্তর হবে। আমরা নারীদের আরো দক্ষ করে তুলতে এদিকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। আগামীতে নারীদের জন্য আররো নিরাপদ ও সমতাহীন সমাজ গড়ে তোলা হবে উল্লেখ করে শিরীন শারমিন বলেন,

সরকার নারীদের জন্য বাজেটে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে থাকে। সেটি ব্যাংকের মাধ্যমে আরো কীভাবে সহজে সে অর্থ তুলে দেয়া যায় সেটি নিশ্চিত করা হবে। এ সময় ডিআরইউয়ের সাবেক সহসভাপতি মাহমুদা চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, প্রেসক্লাবের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য শাহনাজ বেগম, এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি নাদিরা কিরন, ইকোনোমিক রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি শারমিন রিনভী, ডিপ্লোমেটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টিকে সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। ডিআরইউয়ের নারী বিষয়ক সম্পাদক রীতা নাহারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি মোরসালিন নোমানী, সহসভাপতি ওসমান গনি বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান খান, যুগ্ম সম্পাদক আরাফাত দাড়িয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাইদুল হাসান রুবেল প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments