Friday, February 3, 2023
Homeদেশজুড়েজেলার খবরপঞ্চগড়ে ১০ ডিগ্রি তাপমাত্রা দিয়ে শুরু নতুন বছর

পঞ্চগড়ে ১০ ডিগ্রি তাপমাত্রা দিয়ে শুরু নতুন বছর

পঞ্চগড়ে হাড় কাঁপানোর শীতে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার রেকর্ড দিয়ে শুরু হলো ইংরেজি নতুন বছর। রোববার (১ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বছর শনিবার সকাল ৯টায় রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা। 

আবহাওয়া অধিদপ্তর তথ্য সূত্রে জানা যায়, রাত ১২টার পর থেকে শুরু হয়েছে নতুন বছর ২০২৩। মধ্যরাত থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় ঢাকা পড়ে উত্তরের শীতপ্রবণ জেলা পঞ্চগড়। এ কারণে সড়কে বিভিন্ন যানবাহনকে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলতে দেখা গেছে। শীতের তীব্রতার কারণে গ্রামে শহরের হাটবাজারগুলোতে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা যায়।

বেলা ১১টা অবধি শীত থাকায় শীতের গরম পড়ে থাকতে যায় এ অঞ্চলের মানুষদের। অফিস আদালতে দেরিতে আসছেন অনেকেই। বিকেল গড়লেই বইতে থাকে উত্তরের হিমেল হাওয়া। এ হাওয়ায় ঝড়তে থাকে কনকনে শীত। সন্ধ্যার পর রাত হয়ে উঠে বরফের। হাটবাজারে কাগজ, টিউব পুড়িয়ে আগুন পোহাতে দেখা যায়। 

শীতের কারণে বিপাকে পড়েছেন বিভিন্ন শ্রেণির খেটে খাওয়া মানুষ। পাথর শ্রমিক, চা শ্রমিক, দিনমজুর থেকে শুরু করে ছোটখাটো যানবাহন ভ্যান চালক মানুষগুলো পড়েছেন বিপাকে। ভোর-সকালে শীতের তীব্র প্রকোপের কারণে কাজে যেতে পারছেন না সহজে। তবুও পেটের তাগিদে কাউকে নদীতে পাথর তুলতে, কাউকে চা-বাগানে আবার কাউকে দিনমজুরের কাজ করতে যেতে দেখা গেছে। শীতের দূর্ভোগ বেড়েছে শিশু ও বয়স্কদের মধ্যে।

এ দিকে শীতের কারণে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে নানান শীতজনিত রোগ। জ্বর, সর্দি-কাঁশি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ ঠান্ডাজনিত রোগ নিয়ে হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হচ্ছেন রোগীরা। উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শতাধিক রোগী চিকিৎসা নিতে আসছেন। এদের মধ্যে বেশিরভাগই শিশু।

চিকিৎসকরা বলেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে রোগীর চাপ বেড়েছে। এমনিতে শীত মৌসুমে আবহাওয়া শুষ্ক থাকায় বাতাসে জীবাণুর পরিমাণ বেড়ে যায়। শীতজনিত রোগ হিসেবে সর্দি-কাঁশি, শ্বাসকষ্ট বেশি হয়ে থাকে। আর শিশু ও বয়োজ্যেষ্ঠরা শীতজনিত রোগে বেশি আক্রান্ত হয়। তাই এ সময়টাতে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে পারলে কিছুটা হলেও সুরক্ষা মিলবে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ  বলেন, ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার রেকর্ড দিয়ে শুরু হলো নতুন বছর। গতকাল (৩১ ডিসেম্বর) বছরের শেষ দিনে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জানুয়ারিতে তাপমাত্রা কমবে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments