Tuesday, April 23, 2024
Homeখেলাধুলাপাকিস্তানের খেলোয়াড়দের ফিটনেস নিয়ে ওয়াসিমের শঙ্কা

পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের ফিটনেস নিয়ে ওয়াসিমের শঙ্কা

বিশ্বকাপের কদিন আগেও পাকিস্তান ছিল ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের সেরা দল। শেষ মুহূর্তে শীর্ষস্থান হারালেও মাঠের খেলায় তার প্রভাব পড়েনি। বিশ্বকাপে বাবর আজমদের শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। নেদারল্যান্ডসের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও বড় রান তাড়া করে দারুণ জয় তুলে নিয়েছিল তারা। যদিও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে হারতে হয়েছে। বিশ্বকাপে যা একই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তাদের ৮ম হার।

এমন হারের পর স্বাভাবিকভাবেই চটেছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা। প্রায় সকলেই ব্যক্ত করেছেন হতাশার কথা। কড়া কথা শোনাতেও ছাড়েননি তারা। কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম তো সরাসরিই বলেছেন, পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের ম্যাচ খেলার মতো ফিটনেসই নেই। কোনো ফিটনেস টেস্ট ছাড়াই বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে খেলতে গেছেন বাবররা, এমনই অভিযোগ করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক।

বর্তমানে পাকিস্তানের কোন ফিটনেস টেস্ট নেই বলে উল্লেখ করেন ওয়াসিম, ‘আমি এই খেলোয়াড়দের ফিটনেস নিয়ে শঙ্কিত। বর্তমানে তাদের কোনো ফিটনেস টেস্ট নেই। মিসবাহ যখন কোচ এবং নির্বাচক ছিল তখন ইয়ো ইয়ো টেস্ট ও অন্যান্য টেস্ট হতো। একজন পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে প্রতি মাসে অন্তুত একবার ফিটনেস টেস্টের মধ্যে দিয়ে যাওয়া উচিত। আপনি যদি এটা না করেন তাহলে হারতেই হবে।’

গত কিছুদিন ধরেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডে বইছে পরিবর্তনের হাওয়া। রমিজ রাজা পিসিবির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব ছাড়ার পর নাজাম শেঠি বেশ কিছুদিন দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। সরকারের পালা বদলে পিসিবির চেয়ারম্যান এখন জাকা আশরাফ।

এর প্রভাব পড়েছে ক্রিকেটারদের মধ্যেও। এমনটাই ধারণা ওয়াসিমের, ‘পিসিবি গত তিন বছরে তিনজন চেয়ারম্যান দেখেছে। এটা দলের সদস্যদের মধ্যে ভয় ধরিয়ে দিয়েছে এবং ম্যানেজমেন্টও জানে না তারা পরবর্তী সিরিজে দলের সঙ্গে থাকবে কিনা। ২ উইকেটে ১৫৪ থেকে ১৯১ রানে অল আউট খুবই, খুবই হতাশাজনক।’

Most Popular

Recent Comments