Sunday, October 24, 2021
Home আন্তর্জাতিক পুতিনের সঙ্গে বাইডেনের ফোনালাপ

পুতিনের সঙ্গে বাইডেনের ফোনালাপ

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

হোয়াইট হাউজে অভিষেকের পর এই প্রথমবারের মতো রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মঙ্গলবার ফোনে কথা হয় দুই নেতার।
ফোনালাপে রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা আলেক্সাই নাভালনি-র গ্রেফতার, মস্কোর সাইবার গুপ্তচরবৃত্তি এবং আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর ওপর হামলায় রাশিয়ার উস্কানির মতো বিষয়গুলোর অবতারণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বাইডেন প্রশাসনের দুই জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, পুতিনের কাছে আলেক্সাই নাভালনি-র অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন বাইডেন। ইউক্রেনের ওপর আগ্রাসন থামাতেও মস্কোর প্রতি আহবান জানিয়েছেন তিনি। কেননা, ইউক্রেনের সার্বভৌমত্বের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের জোরালো সমর্থন রয়েছে। দুই নেতার ফোনালাপে বিশেষ করে পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়। বাইডেন বলেন, পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি যার মেয়াদ ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে শেষ হচ্ছে, উভয় দেশের উচিত হবে তা আরও ৫ বছরের জন্যে নবায়ন করা। ২০১০ সালে ওবামা প্রশাসন মস্কোর সঙ্গে ওই চুক্তিতে উপনীত হয়েছিল। একে ওবামা প্রশাসানের জন্য একটি বড় রাজনৈতিক বিজয় হিসেবে বিবেচনা করা হয়। হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলেছেন, নিউ স্টার্ট ট্রিটি নামের এই চুক্তিকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

রাশিয়ার সঙ্গে বিদ্যমান সম্পর্কের বাস্তবতায় এর মেয়াদ বাড়ানো আরও জরুরি হয়ে পড়েছে। রাশিয়ার বিষয়ে বাইডেনের অবস্থান তার পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পের অবস্থানের পুরোপুরি বিপরীত। পুতিনের সঙ্গে উষ্ণ সম্পর্ক নিয়ে উচ্ছ¡সিত ছিলেন ট্রাম্প। অন্যদিকে মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপসহ নানা ইস্যুতে মস্কোর প্রতি ক্ষুব্ধ বাইডেন। তবে এদিনের ফোনালাপে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ায় বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পুতিন। দুই নেতাই দ্বিপাক্ষিক যোগাযোগ এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে একমত হন। মঙ্গলবার পুতিনের সঙ্গে কথা বলার আগে যুক্তরাষ্ট্রের চার মিত্র দেশের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন বাইডেন। কানাডা, মেক্সিকো, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের নেতাদের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন তিনি। ২০ জানুয়ারি হোয়াইট হাউজে অভিষেকের পর প্রথম কোনও বিশ্বনেতা হিসেবে ২২ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ফোন করেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে। পরদিন শনিবার দীর্ঘ সময় ধরে কথা বলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে। এরপর কথা বলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্র্যোঁ-র সঙ্গে। এর আগে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস লোপেজ বাইডেনকে ফোন করেন। বিশ্বনেতাদের সঙ্গে ফোনালাপে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও জলবায়ু পরিবর্তনের মতো আন্তর্জাতিক নানা ইস্যুতে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সূত্র: বিবিসি, ভয়েস অব আমেরিকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ জানালো ভারত

আ.জা. আন্তর্জাতিক: আফগানিস্তানে ক্ষমতার পালাবদল নিয়ে ভারতের অস্বস্তি কাটছেই না। একদিকে তালেবানের ওপর পাকিস্তানের প্রভাব, অন্যদিকে আফগানিস্তানে দিল্লির...

কুয়েতে তেল শোধনাগারে অগ্নিকাণ্ড

আ.জা. আন্তর্জাতিক: কুয়েতের গুরুত্বপূর্ণ একটি তেল শোধনাগারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন তেল কোম্পানি জানিয়েছে, সোমবারের এ...

পতিতাবৃত্তি বন্ধ করতে চান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. আন্তর্জাতিক: আইন করে দেশে পতিতাবৃত্তি বন্ধ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ। রোববার তার দল সোস্যালিস্ট...

২০০ নারী-পুরুষের পোশাকহীন ফটোশ্যুট

আ.জা. আন্তর্জাতিক: স্পেন্সার টিউনিক প্রথম মৃত সাগরে তার লেন্স স্থাপন করার ১০ বছর পর বিশ্বখ্যাত এই আলোকচিত্রী আরেকবার...

Recent Comments