Friday, June 25, 2021
Home জাতীয় ফর্কলিফটের অভাবে বেনাপোল বন্দরে পণ্য লোড-আনলোড নিয়ে বিপাকে ব্যবসায়ীরা

ফর্কলিফটের অভাবে বেনাপোল বন্দরে পণ্য লোড-আনলোড নিয়ে বিপাকে ব্যবসায়ীরা

আ.জা. ডেক্স:

দেশের প্রধানতম স্থলবন্দর বেনাপোলে ক্রেন বা ফর্কলিফটের অভাবে পণ্য লোড-আনলোড নিয়ে ব্যবসায়ীরা বিপাকে রয়েছে। ফলে দিনের পর দিন খালাসের অভাবে পণ্যবোঝাই ট্রাক বন্দরের ভেতর দাঁড়িয়ে থাকছে। ট্রাক থেকে পণ্য নামানোর অনুমতি মিললেও ক্রেন বা ফর্কলিফট মিলছে না। বর্তমানে বেনাপোলে অধিকাংশ ক্রেন ও ফর্কলিফট অকেজো থাকায় মালামাল ওঠানামা ও ডেলিভারি করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে বন্দরে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ পণ্যজট। বিরাজমান জটিলতা সমাধান না হলে যে কোনো সময় বন্ধ হতে পারে দুই দেশের আমদানি-রফতানি বাণিজ্য। বেনপোল বন্দর সংশ্লিষ্ট এবং ভুক্তভোগীদের সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, বেনাপোল বন্দরে বর্তমানে ২৫ টন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন ফর্কলিফট রয়েছে একটি ও ৫ টনের ফর্কলিফট রয়েছে ৫টি। তার মধ্যে ৪টি দীর্ঘদিন ধরে অচল। তাছাড়া বন্দরে একটি করে ৪০ টন, ৩৫ টন ও ১৯ টনের ক্রেন রয়েছে। আর ১০ টনের ২টি ক্রেন আছে। ওসব ক্রেনের মধ্যে অধিকাংশ সময়ই ৫টি অকেজো থাকে। বর্তমানে সবচেয়ে বড়ো ২৫ টনের ফর্কলিফটি অকেজো থাকায় মালামাল লোড-আনলোডে বড় ধরনের বিপর্যয় ঘটছে।

সূত্র জানায়, খালাসের অভাবে দিনের পর দিন পণ্যবোঝাই ট্রাক বন্দরের ভেতর দাঁড়িয়ে থাকছে। বেনাপোল স্থল বন্দরে ফর্কলিফট ও ক্রেন সরবারহকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মতে, ৫ বছরের চুক্তিতে তারা বন্দরে ১৪ বছর ধরে কাজ চালাচ্ছে। কিন্তু তারপরও একদিকে যেমন চুক্তি মূল্য বাড়েনি, অন্যদিকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটির পাওনা টাকাও পরিশোধ করা হয়নি। বিগত ২০০৬ সালে ফর্কলিফট ও ক্রেন সরবারহকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সিস লজিস্টিক্যাল সিস্টেম লিমিটেডের সাথে বন্দরের পণ্য ওঠানো ও নামানোর জন্য বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে ৫ বছরের চুক্তি করে। পরবর্তীতে বন্দর কর্তৃপক্ষ চুক্তি আর নবায়ন করেনি। পাশাপাশি ঠিকাদারি দেনা-পাওনাও পরিশোধ করেনি। ফলে অনেকটা বাধ্য হয়েই প্রতিষ্ঠানটি গত ১৪ বছর ধরে পুরাতন চুক্তিতে বন্দরের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এখন ওই ঠিকাদারি ওই প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ১৪ বছর আগের চুক্তিতে বর্তমানে বন্দরের কার্যক্রম চালানো সম্ভব নয়। এখন বন্দর কর্তৃপক্ষ দেনা-পাওনা পরিশোধ করলেই ঠিকাদরি প্রতিষ্ঠানটি বন্দরের কার্যক্রম গুটিয়ে নেবে বলে জানিয়েছে।

এদিকে এ প্রসঙ্গে বেনাপোল স্থলবন্দরের ডেপুটি ডাইরেক্টর মামুন তরফদার জানান, বর্তমানে বন্দরে ক্রেন বা ফর্কলিফটের সমস্যা রয়েছে। মূলত আইনি জটিলতার কারণে সমস্যাগুলো হচ্ছে। আশা করা যায় অচিরেই ওসব সমস্যার সমাধান করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

জামালপুরে আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

জামালপুর প্রতিনিধি: “সংকটে, সংগ্রামে ও অর্জনে গণমানুষের পাশে আওয়ামী লীগ” এই প্রতিপাদ্যের আলোকে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে জামালপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী...

শেখ হাসিনা ফিরেছিলেন বলেই দেশ আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সেদিন দেশে ফিরে এসেছিলেন বলেই...

দেওয়ানগঞ্জের শারীরিক প্রতিবন্ধী শাহিদা আক্তারকে ২০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান

নিজস্ব সংবাদদাতা: জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চর আমখাওয়া ইউনিয়নের সানন্দবাড়ী বাজার এলাকার শারীরিক প্রতিবন্ধী শাহিদা আক্তারকে ২০ হাজার টাকা...

ইসলামপুরে স্বাস্থ্য বিভাগের বার্ষিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

ওসমান হারুনী: জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় স্বাস্থ্য বিভাগের বার্ষিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মিলনায়তনে উন্নয়ন সংঘ...

Recent Comments