Tuesday, July 20, 2021
Home বিনোদন বাংলা চলচ্চিত্র অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন রোজী আফসারী

বাংলা চলচ্চিত্র অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন রোজী আফসারী

আ. জা. বিনোদন:

মনে আছে মিষ্টি হাসির অভিনেত্রী রোজী আফসারীর কথা? বাংলা চলচ্চিত্র অঙ্গনের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন তিনি। বাংলা চলচিত্রের সোনালী দিনগুলোতে চোখ ফেরালেই মনে পড়ে যাবে তার কথা। কখনো দাপুটে নায়িকা, কখনো বা মা, বড় ভাবী, সংসারের বড় বৌ, বিধবা, মহিয়সী নারী চরিত্র, বাদশাহ মহলের নির্বাসিত বেগম চরিত্রে অভিনয় করে তাক লাগিয়েছেন রোজী। ‘এই ঘর এই সংসার’ সিনেমাতে সালমান শাহ ও আলীরাজের বড় বোনের চরিত্রটি তো আজও দর্শকের মনে জীবন্ত। সেই জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজী আফসারীর আজ ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৭ সালের ৯ মার্চ কিডনিজনিত রোগে মাত্র ৫৭ বছর বয়সে তিনি পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন। তার চলে যাওয়ার এ দিনটিতে অনেকেই মনে করেছেন তাকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকে তাকে নিয়ে লিখেছেন স্ট্যাটাস। চলচ্চিত্রে তিনি রোজী সামাদ বা রোজী আফসারী দুটি নামেই পরিচিত। তবে তার পারিবারিক নাম ছিল শামীমা আক্তার রোজী। ১৯৪৬ সালের ২৩ এপ্রিল লক্ষীপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। বাংলা চলচ্চিত্রের সোনালি যুগের অভিনেত্রী রোজী ১৯৬২ সালে আবদুল জব্বার খান পরিচালিত ‘জোয়ার এলো’ ছবির মাধ্যমে অভিনয় জীবন শুরু করেন। তিনি জনপ্রিয়তা পান ১৯৭৪ সালে মুক্তি পাওয়া নারায়ণ ঘোষ মিতা পরিচালিত ‘আলোর মিছিল’ সিনেমা দিয়ে।

পরের বছরই ১৯৭৫ সালে ‘লাঠিয়াল’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন রোজী। এ অভিনেত্রী অভিনয়জীবনে ৪ দশক ধরে ৩৫০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে পাকিস্তানের ‘জাগো হুয়া সাবেরা’, ‘পুনম কি রাত’সহ ২৫টি উর্দু সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। তার সেরা চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘সূর্য গ্রহণ’, ‘সূর্য সংগ্রাম’, ‘জীবন থেকে নেয়া’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’। এছাড়া অন্যান্য জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘ওরা ১১ জন’, ‘এতটুকু আশা’, ‘নীল আকাশের নীচে’, ‘অশিক্ষিত’, ‘প্রতিকার’ ইত্যাদি। তার সর্বশেষ অভিনীত ছবি ‘পরম প্রিয়’ ২০০৫ সালে মুক্তি পায়। ১৯৮৬ সালে ‘আশা নিরাশা’ নামে একটি সিনেমা পরিচালনা করেন তিনি। রোজীই ছিলেন দেশের প্রথম নারী পরিচালক। ব্যক্তিজীবনে রোজি আফসারী এক মেয়ে ও এক ছেলের জননী। তিনি প্রথম বিয়ে করেন পরিচালক ও প্রযোজক আবদুস সামাদকে। সে সংসারে কবিতা সামাদ নামে এক কন্যা রয়েছে তার। এরপর সে সংসারে বিচ্ছেদ হলে ১৯৮৫ সালে বিয়ে করেন চলচ্চিত্র নির্মাতা মালেক আফসারীকে। বয়সে মালেক আফসারী তার ২০ বছরের ছোট হলেও দীর্ঘ ২২ বছর সংসার করেছেন তারা। সেই দাম্পত্য জীবনে রবি আফসারী নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে তাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

সবার জন্য ভ্যাকসিনের পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা প্রতিরোধকল্পে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর পুনরায় গুরুত্বারোপ করে পবিত্র ঈদুল আযহায় দেশের...

জামালপুরে করোনা প্রতিরোধে গো-হাটা ইজারাদারদের নিয়ে আলোচনা সভা

এম.এ রফিক: জামালপুর সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার উপজেলা পরিষদে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে গো-হাটা ইজারাদারদের সাথে...

মেলান্দহের ফুলকোচায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গাছ কর্তন

নিজস্ব সংবাদদাতা: জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার অন্তর্গত ৮নং ফুলকোচা ইউনিয়নের মুন্সি পাড়ায় বিজ্ঞ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রায় লক্ষাধিক...

ইসলামপুরে ৫৯হাজার ৫৬৬টি পরিবারে ভিজিএফ বিতরণ

ওসমান হারুনী: জামালপুরের ইসলামপুরে পবিত্র ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে বন্যা/অন্যান্য দুর্যোগ/দু:স্থ/ীঅতিদরিদ্র ভিক্ষুক পরিবারের মাঝে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় ইসলামপুর উপজেলার ১২টি...

Recent Comments