Friday, December 2, 2022
Homeখেলাধুলাবিশ্বকাপ নিয়ে উইলিয়ামসনের বার্তা

বিশ্বকাপ নিয়ে উইলিয়ামসনের বার্তা

আ.জা. স্পোর্টস:

বেশ কিছু দল শক্তি-সামর্থ্যে কাছাকাছি। আবার পিছিয়ে থাকারাও ঘটাতে পারে অঘটন। তাই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অপ্রত্যাশিত অনেক কিছুই ঘটার সম্ভাবনা দেখছেন কেন উইলিয়ামসন। নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক প্রতিটি দলকে দিচ্ছেন সমান গুরুত্ব। বিশ্ব ক্রিকেটের শক্তিশালী দলগুলোর একটি নিউ জিল্যান্ড এখনও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম শিরোপার সন্ধানে আছে। এই টুর্নামেন্টে তাদের সেরা সাফল্য সেমি-ফাইনাল। ২০০৭ সালে প্রতিযোগিতাটির অভিষেক আসরে ও সবশেষ আসরে সেরা চারে উঠেছিল তারা। বৈশ্বিক আসরে নিউ জিল্যান্ডের সা¤প্রতিক পারফরম্যান্স দারুণ। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তারা দারুণ লড়াই করে হারে বাউন্ডারির ব্যবধানে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের বিজয়ী তারা। ফাইনালে হারায় ভারতকে। নিজের দল দারুণ ছন্দে থাকলেও উইলিয়ামসন বাকিদের করছেন সমীহ।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে অধিনায়কদের মিডিয়া সেশনে তিনি জানান, ম্যাচ জেতানোর মত ক্রিকেটার আছে সব দলেই, তাই হতে পারে যেকোনো কিছুই। “এটা দারুণ একটি প্রতিযোগিতা এবং অবশ্যই লম্বা সময় পর হতে যাচ্ছে। ম্যাচ জেতাতে পারে এমন ক্রিকেটার সব দলেই আছে। নিজেদের দিনে যেকোনো দল যে কাউকে হারাতে পারে।” “সামনের পথচলায় বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ আসতে যাচ্ছে। এটা সংক্ষিপ্ত একটি টুর্নামেন্ট, তাই দুর্দান্তভাবে শুরু করতে চাইবে সবাই। শুরুতেই মোমেন্টাম ধরার চেষ্টায় থাকবে। কিন্তু এই বিশ্ব আসরগুলোতে যখন ভিন্ন ভেন্যুতে প্রতি তিন দিনে ভিন্ন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হতে হয়, তখন বেশ দ্রুত এর সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে।” আগামী ২৬ অক্টোবর পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে নিউ জিল্যান্ডের এবারের বিশ্বকাপ যাত্রা। উইলিয়ামসন জানালেন, সব দলই মুখিয়ে আছে নিজেদের ছাপ রাখতে। “বৈশ্বিক আসর হওয়ায় বিশ্বজুড়ে থাকা সব প্রতিভার নিজেদের প্রদর্শনের একটি রোমাঞ্চকর সুযোগ এটি। আর টি-টোয়েন্টি সংস্করণ স্বাভাবিকভাবেই খেলাকে উত্তেজনাপূর্ণ এবং অতি-প্রতিযোগিতামূলক করে তোলে। এটা চমৎকার একটি আসর এবং যেটার অপেক্ষায় সব দল।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments