Wednesday, October 28, 2020
Home জামালপুর মাত্র ৫ বছরে জিরো থেকে হিরো গাইবান্ধার আনোয়ার

মাত্র ৫ বছরে জিরো থেকে হিরো গাইবান্ধার আনোয়ার

মোহাম্মদ আলী
ইসলামপুর উপজেলাধীন গাইবান্ধা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নানা আভিযোগ উঠেছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী, সমর্থক ও ভোটারের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন ইউনিয়নবাসী।
শনিবার, ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ বরাবর করা অভিযোগে জানা যায়, গাইবান্ধার মরকান্দি গ্রামের মেগু মেম্বারের ছেলে আনোয়ার হোসেন একজন সুবিধাবাদী, সুযোগ সন্ধানী, দলছুট, আমদানি আওয়ামী লীগ। কয়েক বছর আগেও সে বিএনপি’র ক্যাডার ছিল। তার সামনে আওয়ামী লীগের নাম উচ্চারণ করা যেত না। তার সামনে আওয়ামী লীগের কোনো কর্মি পানি খেতে চাইলে প্র..খাইয়িয়ে দিতে বলত। এছাড়া সে আওয়ামী লীগ, আওয়ামী লীগের সভানেত্রি জননেত্রি শেখ হাসিনা ও জাতির পিতাকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করত, অবজ্ঞা অবহেলা ও গালিগালাজ করত। অতঃপর বিএনপি রাষ্ট্রিয় ক্ষমতা হারালে ২০১৪ সালে সে পেট আর পিঠ বাঁচাতে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছে। যোগদানের পর থেকে সে আওয়ামী লীগ সমর্থীত জনৈক ইউপি চেয়ারম্যানের নাম, প্রভাব, ইমেজ ও ব্যক্তিত্বকে ব্যবহার করে ও ইউনিয়নবাসীকে ঘরসহ নানা সুযোগ সুবিধা দেওয়ার নাম করে এবং কতিপয় চেয়ারম্যান মেম্বার চোরাইকৃত ভিজিডি, ভিজিএফ, টিআর জিআর এর চাল গম গোপনে খরিদ কালোবাজারীতে বিক্রি করে আজ সে কোটিপতি। চর থেকে উঠে এসে উপজেলার প্রপারের মতো জায়গায় ১০ শতাংশ জমির উপর নির্মাণ করছে তিন তলা বাড়ি। কিনেছে আরও আবাদী জায়গা জমি। এখানেই সে ক্ষান্ত নয়, এবার সে কালো টাকার জোরে আওয়ামী লীগের নেতা হতে মাঠে নেমেছে। শতাধিক মটর সাইকেল নিয়ে করছে শোডাউন। কর্মী সমর্থক করাচ্ছে প্রকাশ্য ভূড়িভোজ। রাতের আধারে কালো টাকায় কেনার পায়তারা করছে ভোটার।
ইউনিয়নবাসী মনে করছেন, তার মতো এমন সুযোগ সন্ধানী, হাইব্রিড, কালোবাজারী গাইবান্ধা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হলে একদিকে যেমন সিনিয়র নেতৃবৃন্দের বিচক্ষণতা ও সততা নিয়ে প্রশ্ন উঠবে, অপরদিকে দলের ত্যাগী ও খান্দানী নেতাকর্মিরা বঞ্চিত হবেন।
অপর একজন সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী বলেন, আনোয়ার তার কালো টাকায় সমর্থন আদায় করে নেওয়ার অপচেষ্টা করছে। কিন্তু, সে জানে না তার মতো পরগাছা, গুপ্তচরের আওয়ামী লীগে জায়গা নেই।
এ ব্যাপারে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি আগের ব্যবসা বাদ দিয়েছি। এখন ঠিকাদারি করি। আর ইসলামপুরে আমার কোনো বাড়ি নেই। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বীত হয়ে অন্য প্রার্থীরা আমার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে জাতিসংঘের দৃঢ় ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী

আ.জা. ডেক্স: রোহিঙ্গা সংকটসহ বিভিন্ন বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘকে কার্যকর ও দৃঢ় ভ‚মিকা রাখার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ...

সুন্দরবনে উল্লেখযোগ্য হারে ডলফিন বাড়ছে: বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন

আ.জা. ডেক্স: সুন্দরবনের ঢাংমারী, ঘাঘরামারী ও চাঁদপাই অভয়ারণ্যে ডলফিনের বৃদ্ধির হার ৫৫ শতাংশ, যা দেশের ডলফিন সংরক্ষণের ক্ষেত্রে...

ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

আ.জা. ডেক্স: বিশিষ্ট আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন...

কমতির দিকে সরকারিভাবে খাদ্যের মজুদের পরিমাণ

আ.জা. ডেক্স: সরকারিভাবে দেশে খাদ্যের মজুদের পরিমাণ দিন দিন কমে যাচ্ছে। বর্তমানে খাদ্যের মজুদের পরিমাণ নেমে এসেছে গত...

Recent Comments