Thursday, April 25, 2024
Homeজামালপুরমারাত্বক অসুখে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে শয্যাশায়ী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান পরিমল

মারাত্বক অসুখে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে শয্যাশায়ী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান পরিমল

মোহাম্মদ আলী : ১৫ অগাস্ট জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান ঘাতকদের হাতে স্বপরিবারে নিহত হওয়ার পর সারা বাংলায় ভয়ের বা ত্রাসের রাজত্ব কায়েম হয়েছিল। সেসময বঙ্গবন্ধুর অনেক সহচর ও বাঘা বাঘা নেতারা প্রাণের ভযে আত্মগোপন করেছিলেন। কেউ কেউ বেঁচে থাকার প্রয়োজনে খুনীদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছিলেন বা আতাত করেছিলেন। কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। অতঃপর বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী নেতৃত্বে যে কয়েকজন মুজিব প্রেমিক, জাতির শ্রেষ্ঠসন্তান মুক্তিযোদ্ধা মাথায় কাফনের কাপড় বেধে স্বশস্ত্র প্রতিবাদ করেছিলেন তাঁদের একজন পরিমল চন্দ্র সাহা। যিনি একজন যুদ্ধাহত ডাবল মুক্তিযোদ্ধা। বর্তমানে তিনি গুরুতর অসুস্থ।
গত ২৫ জানুয়ারী নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হয়ে মনমনসিংহ মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন।সে হাসপাতালের র্সার্জারী অধ্যাপক ডা. এহসানুর রেজা শোভনের চিকিৎসাধীন থাকা তাকে অবস্থায় ঢাকায় রেফার করেন পড়সঢ়ষবী ভরংঃঁষধ অপারেশনের জন্য। সেই থেকে তিনি ঢাকা, মুগদা সরকারি মেডিকেল কলেজ হসপিটালে ভর্তি আছেন।
মুগদা হাসপাতালে তিনি সার্জারী বিভাগের প্রধান ডা.সুবিনয় কৃষ্ণ পাল ও অধ্যাপক ডা. তারেক তত্বাবধানে আছেন। শীঘ্রই তাঁর অপারেশন করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক দল।
বীর মুক্তিযোদ্ধাদা পরিমল বাবু পড়সঢ়ষবী ভরংঃঁষধ ছাড়াও হার্ট ডিজিজ, হাইপারটেনশন ও শ্বাসকষ্টসহ নানাবিধ সমস্যা ভোগছেন। তাঁর আশু রোগ মুক্তি কামনায় প্রার্থনা ও সমবেদনা জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব ড.আসাদুজ্জামান। এছাড়া সমবেদনা জানিয়েছেন বকশিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহনা জিন্নাত, এ.সি.ল্যান্ড আতোয়ার রাব্বি , বকশিগঞ্জ পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর। বকশিগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন তালুকদার, বকশিগঞ্জ থানা সাবেক মুক্তিযুদ্ধো কামাণ্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মফিজ উদ্দিন, নওশেদ আলী, যুদ্ধাহত সাবেক জেলা সাংগঠনিক কমান্ডার আমিনুল ইসলাম, এ.কে.এম সিরাজুল ইসলাম, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব ইকবাল আজাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আফসার আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব ইকবাল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ হোসেন, ডেপুটি কমান্ডার আবদুল বাসেদ, বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আযামল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নাফিউল হক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়াসহ অন্যান্য বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ।
এছাড়া তাঁকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছেন টাঙ্গাইলের যুদ্ধকালীন কোম্পানি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আহমেদ। নালিতাবাড়ি কমান্ডার হায়দর আলী মাষ্টার, ইপতেখার হোসেন জুবেরী, এলেঙ্গার হাবিবুর রহমান, টাঙ্গাইলের জি.ও.ছি কমান্ডার সেলিম তালুকদার, সাবেক এম.পি মানু মজুমদার, হালুয়াঘাট থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কবির বেগ, কমান্ডার মীর দেলওয়ার হোসেন ও নকলার সাবেক থানা কমান্ডার চেয়াম্যান গোলাম রব্বানী সহ অনেক বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ।
বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিমল সাহার পরিবার তাঁর রোগমুক্তির জন্য জাতি ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।

Most Popular

Recent Comments