Thursday, August 18, 2022
Homeখেলাধুলাযে কারণে ‘এ’ দলের সঙ্গে পাঠানো হচ্ছে না মুমিনুলকে

যে কারণে ‘এ’ দলের সঙ্গে পাঠানো হচ্ছে না মুমিনুলকে

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট সিরিজে দ্বিতীয় ম্যাচের একাদশ থেকে বাদ পড়েছিলেন সদ্য সাবেক অধিনায়ক মুমিনুল হক। দেশে তখন সংবাদমাধ্যমে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন, আবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজে পাঠানো হবে মুমিনুলকে। তবে সেটি ‘এ’ দলের সঙ্গে।

বিসিবি প্রধানের ভাষ্য ছিল, ‘অবশ্যই মুমিনুলকে সেখানে (ওয়েস্ট ইন্ডিজে এ দলের সফর) পাঠানোর চিন্তা থাকবে।’ তিনি আরও যোগ করেছিলেন, ‘এগুলো তো আমার বলা কঠিন। আমি তো নির্বাচক, ম্যানেজমেন্ট, কোচিং স্টাফদের সঙ্গে কথা বলিনি। কারও সঙ্গে কথা বলিনি। তবে মনে হচ্ছে, এটা তো ওর জন্য দারুণ সুযোগ হতে পারে।’

চলতি মাসের প্রথম দিকে বিসিবি সভাপতির এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতেই ধারণা করা হচ্ছিল আগস্টে বাংলাদেশ ‘এ’ দল যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে, সেই দলে হয়তো মুমিনুলও থাকতে পারেন। শেষ খবর, শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য এ দলের দুটি স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। কোনোটিতেই নেই মুমিনুল হকের নাম।

খুব স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, বিসিবি প্রধান মুমিনুলকে ফর্ম ফেরাতে এ দলের সঙ্গে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে পাঠানোর কথা বলেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মুুমিনুল নেই কোথাও? এটা কেমন হলো?

যদিও বিসিবি সভাপতির বক্তব্যে একটা বিষয় পরিস্কার ছিল। তা হলো মুমিনুলের এ দলের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাওয়া না যাওয়া নির্ভর করছিল ক্রিকেট অপস, টিম ম্যানেজমেন্ট, কোচিং স্টাফ ও নির্বাচকদের মতামতের ওপর। তবে কি ক্রিকেট অপস ও নির্বাচকরাই মুমিনুলকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঠানোর পক্ষে মত দেননি? ক্রিকেট অপস প্রধান জালাল ইউনুস ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর কথা শুনে তাই মনে হচ্ছে।

প্রধান নির্বাচক নান্নু জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপে অকপটে স্বীকার করেছেন, ‘মুমিনুলকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে এ দলের সঙ্গে পাঠাতে হবে- পাপন ভাই আমাদের এমন কোনো বার্তা দেননি। তবে আমরা দুদিন আগে বিসিবি অফিসে ক্রিকেট অপস প্রধানের সঙ্গে বসেছিলাম। সেখানে মুমিনুল প্রসঙ্গ উঠেছিল। তাকে নিয়ে কথাও হয়েছে।’

অন্যদিকে জালাল ইউনুস কথা বলেন ভিন্ন আঙ্গিকে। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় মুমিনুল যে অবস্থায় আছে তার জন্য সেরা প্লাটফর্ম হলো এনসিএল ও বিসিএল। সেখানে রান করলে আত্মবিশ্বাস ফিরে আসবে।’

যেহেতু সভাপতি মুমিনুলকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পাঠানোর ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন, তাই বোর্ডের অন্যতম নীতি নির্ধারক জালাল ইউনুস আর মন্তব্যে যাননি। তবে ভেতরের খবর, ক্রিকেট অপস চেয়ারম্যান ও নির্বাচকরা একটি বিশেষ কারণে শেষ মুহুর্তে মুমিনুলকে এ দলের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঠানোর চিন্তা মাথা থেকে সরিয়ে ফেলেন।

ক্রিকেট অপস চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাচক মুখ ফুটে হ্যাঁ-না কিছু না বললেও আসলে কেন মুমিনুলকে ‘এ’ দলের সাথে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ পাঠানো হলো না? কারণ খুঁজতে গিয়ে জানা গেছে ক্রিকেট অপস প্রধান ও নির্বাচকদের যৌথ সভায় একটি বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে।

তা হলো, মুমিনুল এখন অফ ফর্মে। এখন যদি তাকে ‘এ’ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঠানো হয় আর তিনি যদি সেখানে গিয়েও ব্যর্থ হন তখন কী হবে? তখন তো কোনো পথই থাকবে না তাকে ফেরানোর। এতে মুমিনুলের আত্মবিশ্বাসেও চির ধরবে।

এর চেয়ে তাকে এনসিএল ও বিসিএল খেলার সুযোগ করে দেওয়াকে বড় করে দেখা হচ্ছে। ভাবা হচ্ছে, ফর্মে ফেরা তথা নিজেকে খুঁজে পেতে এটি মুমিনুলের জন্য আদর্শ ক্ষেত্র বলে পরিগণিত হবে। যেখানে তিনি চিন্তাভাবনা ছাড়া নিজের মত করে মেলে ধরতে পারবেন এবং তারপর আবার জাতীয় দলে নিজের জায়গাও ফিরে পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments