Friday, January 28, 2022
Home আন্তর্জাতিক রমজান মাসে একদিনে ১৭ জনকে ফাঁসির দড়িতে ঝোলাল মিসর!

রমজান মাসে একদিনে ১৭ জনকে ফাঁসির দড়িতে ঝোলাল মিসর!

আ. জা. আন্তর্জাতিক:

প্রায় আট বছর আগে মিসরের একটি পুলিশ স্টেশনে হামলার মামলায় গত সোমবার ১৭ আসামিকে ফাঁসি দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। ব্রাসেলস-ভিত্তিক একটি মানবাধিকার সংগঠন এ তথ্য জানিয়েছে। তবে বার্তা সংস্থা এপি বলছে, এদিন ফাঁসির দড়িতে ঝোলানো হয়েছে নয় আসামিকে। উই রেকর্ড নামে একটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার প্ল্যাটফর্ম টুইটারে জানিয়েছে, ২০১৩ সালে কায়রোর কেরদাসা পুলিশ স্টেশনে হামলার ঘটনায় জড়িত ১৭ আসামির মৃত্যুদন্ড কার্যকর করেছে মিসরীয় কর্তৃপক্ষ। এ ক্ষেত্রে যথাযথ বিচার প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি বলে অভিযোগ করেছে সংগঠনটি। তবে মিসরের নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও আইনজীবীদের বরাতে এপি জানিয়েছে, ওই মামলায় মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ২০ আসামির মধ্যে নয়জনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। এসব আসামি মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর ২০১৩ সালে কেরদাসা শহরের একটি পুলিশ স্টেশনে হামলা করেছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পরের বছরই স্থানীয় একটি অপরাধ আদালত ১৮৮ আসামিকে মৃত্যুদন্ড দেন। তবে ২০১৭ সালে সেই রায় বদলে চ‚ড়ান্ত রায়ে ২০ জনকে মৃত্যুদন্ড ও কয়েক ডজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়া হয়। আসামিদের বিরুদ্ধে ১১ পুলিশসহ ১৫ জনকে হত্যা, সরকারি সম্পত্তির ক্ষতিসাধন ও আগ্নেয়াস্ত্র বহনের অভিযোগ আনা হয়। এসব আসামির মধ্যে অনেকেই মুসলিম ব্রাদারহুডের সদস্য বলে সন্দেহ রয়েছে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক মিসরীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সোমবার দেশটির বেহেইরা অঞ্চলের ওয়াদি নাতরুন কারাগারে এসব আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃতুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে।

এদিকে মিসরে এসব আসামিকে ‘চূড়ান্ত অন্যায় বিচার’-এর মাধ্যমে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। তারা বলেছে, পবিত্র রমজান মাসে এসব ফাঁসি কার্যকর করে মিসরীয় কর্তৃপক্ষ মৃত্যুদন্ডের ক্রমবর্ধমান ব্যবহার অব্যাহত রাখার নির্মম সংকল্প প্রদর্শন করেছে। এ বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক কোনও মন্তব্যে করেনি মিসরীয় কর্তৃপক্ষ। অ্যামনেস্টির হিসাবে ২০২০ সালে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা বিশ্বের শীর্ষ দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম মিসর। এ ক্ষেত্রে চীন ও ইরানের পরেই তাদের অবস্থান। গত বছর আরব বিশ্বের সর্বাধিক জনবহুল দেশটি অন্তত ১০৭ জনের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করেছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

দেওয়ানগঞ্জে মোবাইল কোর্টে বিভিন্ন মামলায় জরিমানা

নিজস্ব সংবাদদাতা: জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে ভেরিয়েন্ট ওমিক্রনের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে এক অভিযান পরিচালনা করেছেন দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার...

জামালপুরে সিডস প্রকল্পের শিক্ষকদের বুনিয়াদী প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: জামালপুরে উন্নয়ন সংঘের ‘মর্যদা ও স্থায়িত্বশীলতার সাথে আর্থ-সামাজিক ক্ষমতায়তন(সিডস)’ প্রকল্পের আওতায় চাইল্ড ক্লাব শিক্ষকদের ৫ দিনব্যপী বুনিয়াদী...

জামালপুরে হিজড়া জনগোষ্ঠীর পরিবার ও ব্যবসা উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নে প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সমাজের সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠী হিজড়াদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় পরিবার ও ব্যবসা উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।...

রাতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে শীতার্তদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিলেন মহিলা এমপি হোসনে আরা

ওসমান হারুনী: জামালপুর ও শেরপুর আসনের সংরক্ষিত আসনের মহিলা এমপি হোসনে আরা রাতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে শীতার্তদের গায়ে কম্বল...

Recent Comments